kalerkantho


সাক্ষ্য নেওয়া শেষ

‘দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতেই হত্যা’

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর   

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



‘দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতেই হত্যা’

রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যার ঘটনায় করা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। গতকাল সোমবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তাঁর সাক্ষ্যে বলেছেন, দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে এই জাপানি নাগরিককে হত্যা করা হয়েছে।

আসামিদের উপস্থিতিতে রংপুরের বিশেষ জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাউনিয়া থানার ওসি আব্দুল কাদের জিলানীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। এ নিয়ে ১০ কার্যদিবসে ৫৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হলো।

আদালত আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বক্তব্য উপস্থাপনের দিন ধার্য করেছেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বিশেষ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনা জানান, তদন্ত কর্মকর্তার জবানবন্দি নেওয়ার মধ্য দিয়ে এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।

পিপি আরো জানান, তদন্ত কর্মকর্তা তাঁর সাক্ষ্যে বলেছেন, বহির্বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা ছাড়াও দেশের অর্থনৈতিক কাঠামো দুর্বল করতে এবং অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে কুনিওকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

সকালে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে পাঁচ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। তারা হলো জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) রংপুর আঞ্চলিক কমান্ডার মাসুদ রানা, সদস্য এছাহাক আলী, লিটন মিয়া, আবু সাঈদ ও সাখাওয়াত হোসেন।


মন্তব্য