kalerkantho


বাঁশখালীতে বিদ্যুৎ প্রকল্প

সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় লিয়াকত প্রধান আসামি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বেসরকারি কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের বিরোধিতাকারীদের দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় আদালতে মামলা হয়েছে। এ মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে বিরোধিতাকারীদের অন্যতম স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা লিয়াকত আলীকে।

এর আগে পুলিশ মামলা না নেওয়ায় গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগীয় হাকিম আদালতে মামলাটি করা হয়। আদালত অভিযোগটিকে এজাহার হিসেবে গণ্য করতে বাঁশখালী থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সংঘর্ষে নিহত মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী রুমি আক্তার বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলায় নাম উল্লেখ করা হয়েছে লিয়াকত আলীসহ ২৯ জনের। এ ছাড়া অজ্ঞাতপরিচয় আরো ১০০-১৫০ ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

বাঁশখালীর গণ্ডামারা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়ঘোনায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র স্থাপনের উদ্যোক্তা এস আলম গ্রুপ। স্থানীয় ভূমি মালিকরা এই কেন্দ্র স্থাপনের বিরোধিতা করে আসছে। গত ৪ এপ্রিল স্থানীয়দের সঙ্গে এস আলম গ্রুপের লোকজনের সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়।

গত বুধবার দুপুরে স্থানীয়দের সঙ্গে সমঝোতা বৈঠকের আয়োজন করেছিলেন প্রকল্প এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্বপালনকারী নৌবাহিনীর কর্মকর্তা কমোডর এম সোহায়েল।

এ বৈঠকের আগেই বিদ্যুেকন্দ্রের বিরোধিতাকারীদের দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে মোহাম্মদ আলী নিহত হন।

মোহাম্মদ আলী নিহত হওয়ার ঘটনায় আদালতে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কফিল উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগীয় হাকিম শিপলু কুমার দে অভিযোগ তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য বাঁশখালী থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।


মন্তব্য