kalerkantho


১২০ কোটি টাকা বকেয়া

আইজিডাব্লিউ লাইসেন্স বাতিল অ্যাপল কমিউনিকেশনের

বিশেষ প্রতিনিধি   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সরকারের ১২০ কোটি টাকা পাওনা পরিশোধ না করায় আন্তর্জাতিক গেটওয়ে (আইজিডাব্লিউ) অপারেটর অ্যাপল গ্লোবাল টেল কমিউনিকেশনের লাইসেন্স বাতিল করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। গতকাল রবিবার বিটিআরসির উপপরিচালক (লিগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং বিভাগ) সাজেদা পারভীন স্বাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিষ্ঠানকে এখন থেকে বিদেশ থেকে আন্তর্জাতিক কল আনাসহ সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

একই সঙ্গে ইন্ট্রিগেটেড বিজনেস সিস্টেম অ্যান্ড সলিউশন্স লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠানের ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) লাইসেন্সও বাতিল করা হয়েছে বলে ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। এতে লাইসেন্স বাতিলের তারিখ অ্যাপল গ্লোবাল টেল কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে গত ১৩ নভেম্বর ও ইন্ট্রিগেটেড বিজনেস সিস্টেম অ্যন্ড সলিউশন্সের ক্ষেত্রে গত ১২ ডিসেম্বর উল্লেখ করা হয়েছে।

বিটিআরসির তথ্যানুযায়ী, এর আগে ২০১৩ সালে বকেয়া পরিশোধ করতে না পারায় ১০টি আইজিডাব্লিউর লাইসেন্স স্থগিত করেছিল বিটিআরসি। এর মধ্যে ছয়টির লাইসেন্স স্থায়ীভাবে বাতিল করে সেগুলোর কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ ছয়টি আইজিডাব্লিউ হলো রাতুল টেলিকম, কে টেলিকম, বেস্টেক, এসএম কমিউনিকেশন, ভিশন টেল ও টেলেক্স। এদের কাছে আয় ভাগাভাগি বাবদ বিটিআরসির বকেয়া ছিল ৬২৩ কোটি টাকা। এ ছাড়া জানা যায়, আয় ভাগাভাগি, বার্ষিক লাইসেন্স ফি, বিলম্ব, সুদসহ অ্যাপল কমিউনিকেশনের কাছে সরকারের পাওনা মোট ১২০ কোটি টাকা দাঁড়িয়েছে। এ পাওনা  পরিশোধ না করায় এত দিন প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্স অস্থায়ীভাবে বন্ধ ছিল। এরপর প্রতিষ্ঠানটি কয়েকটি কিস্তিতে বকেয়া পরিশোধে বিটিআরসির কাছে আবেদন করে।

কিন্তু সেই কিস্তির অর্থও পরিশোধ না করায় চূডান্তভাবে প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্স বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিটিআরসির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, বকেয়া আদায়ের জন্য প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে পাবলিক ডিমান্ড রিকভারি (পিডিআর) আইনের আওতায় মামলা করা হবে।

এদিকে বর্তমানে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে এমন ২২টি আইজিডাব্লিউ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সরকারি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বিটিসিএল বাদে অন্য ২১টির কাছে বিটিআরসির বা সরকারের পাওনার পরিণাম দাঁড়িয়েছে গত জুন মাস পর্যন্ত বিলম্ব ফিসহ ১৩৭ কোটি ২০ লাখ টাকা। আইজিডাব্লিউ অপারেটর ফোরাম আইএফও বিটিআরসির কাছে বিলম্ব ফি মওকুফের আবেদন জানালে বিটিআরসি গত ডিসেম্বরের শেষে তাদের ২০১তম সভায় সে আবেদন নাকচ করে।


মন্তব্য