kalerkantho


ঢাকায় দিনদুপুরে মা-মেয়েকে গুলি করে ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ঢাকায় দিনদুপুরে

মা-মেয়েকে গুলি

করে ছিনতাই

রাজধানীর উত্তরায় একটি ব্যাংক থেকে বের হওয়ার পরপরই মা ও মেয়েকে গুলি করে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল রবিবার দুপুর ১২টার দিকে ৩ নম্বর সেক্টরের জসীমউদ্দীন সড়কের ফ্রেন্ডস ক্লাব মাঠের পাশে যমুনা ব্যাংকের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন গৃহবধূ শাহানা করিম (৫০) এবং তাঁর মেয়ে নাতিকা রেজওয়ানা করিম (২৮)। তাঁদের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতদের বরাত দিয়ে পুলিশ ও স্বজনরা জানায়, জসীমউদ্দীন সড়কে যমুনা ব্যাংকের শাখা থেকে টাকা তুলে বের হওয়ার পরপরই দুটি মোটরসাইকেলে আসা চারজন মা শাহানা ও মেয়ে রেজওয়ানাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। একটি গুলি মায়ের হাত ভেদ করে মেয়ের ঊরুতে বিদ্ধ হয়েছে। এ সময় তাঁরা মাটিতে পড়ে গেলে দুর্বৃত্তরা টাকা নিয়ে চলে যায়। ঘটনার সময় রেজওয়ানার কোলে দেড় বছরের শিশুসন্তান ছিল, সে অক্ষত রয়েছে।  

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) মোহাম্মদ ইউসুফ আলী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধারণ করা চিত্র দেখে অপরাধীদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ। উত্তরা এলাকায় নিরাপত্তা তল্লাশি জোরদার করা হয়েছে। ’

আহত রেজওয়ানার মামাতো ভাই মো. আবির জানান, শাহানার স্বামী এ কে এম রেজাউল করিম মাদারীপুর ভূমি অফিসের সাবরেজিস্ট্রার।

শাহানা পরিবার নিয়ে উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরের বাসায় থাকেন। গতকাল সকালে শাহানা ও তাঁর মেয়ে রেজওয়ানা ব্যক্তিগত একটি কাজে যমুনা ব্যাংকে টাকা তুলতে গিয়েছিলেন। দুপুর ১২টার দিকে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা তুলে একটি প্রাইভেট কারে করে বাসায় ফিরছিলেন। পথে দুর্বৃত্তরা অস্ত্রের মুখে তাঁদের জিম্মি করে টাকার ব্যাগ চায়। তাঁরা টাকা দিতে অস্বীকার করলে গুলি ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। পরে টাকার ব্যাগ, ভ্যানিটি ব্যাগ ও দুটি মোবাইল ফোনসেট নিয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। ভ্যানিটিব্যাগে কিছু টাকা, জাতীয় পরিচয়পত্র, এটিএম কার্ডসহ বেশ কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস ছিল।

আবির জানান, ঘটনার পর আহতদের দ্রুত উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁদের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুজনেরই অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শাহানা ও রেজওয়ানা এখন আশঙ্কামুক্ত।

এদিকে উত্তরায় এত নিরাপত্তার মধ্যেও দিনদুপুরে ফিল্মি স্টাইলে ছিনতাইয়ের ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলে, এই সড়কে পুলিশ সার্বক্ষণিক টহল দিয়ে থাকে। কিভাবে প্রকাশ্যে গুলি করে টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হলো তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে এলাকাবাসী।

উত্তরা পশ্চিম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক কালের কণ্ঠকে বলেন, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। ছিনতাইকারীদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। গোটা এলাকায় টহল জোরদার করা হয়েছে।


মন্তব্য