kalerkantho


রাজশাহীতে পূজামণ্ডপে হামলা

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে সরস্বতী প্রতিমা ভাঙচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ ও রাজশাহী   

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থায়ী পূজামণ্ডপে থাকা সরস্বতী প্রতিমা ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল শুক্রবার বিকেলের দিকে এ ঘটে। একই দিন রাজশাহী উপশহরের সুজানগর উত্তরপাড়া এলাকায় শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দিরের পূজামণ্ডপে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, শান্তিপূর্ণ ও সম্প্রীতির ক্যাম্পাস নামে পরিচিত এই বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিগত বছরগুলোর মতো এবারও শিক্ষার্থীরা সরস্বতী পূজা উদ্যাপন করে। পূজা হয়ে যাওয়ার পরও প্রতিমা দু-একদিন রেখে পরে বিসর্জন দেওয়া হয়। গতকাল দুপুর পর্যন্ত প্রতিমাটি অক্ষত অবস্থায় অস্থায়ী মণ্ডপেই ছিল। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও দুপুর পর্যন্ত সব কিছু ভালো দেখে যায়। কিন্তু শুক্রবার বন্ধের দিন হওয়ায় ও নীরব পরিবেশের সুযোগে বিকেলের দিকে দুর্বৃত্তরা প্রতিমার একটি হাত ভেঙে ফেলে। সন্ধ্যার পর বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় কর্তৃপক্ষ পুলিশের নজরে আনে।

এ ব্যাপারে ত্রিশাল থানার ওসি মনিরুজ্জমান জানান, প্রতিমার একটি হাত ভেঙে ফেলা হয়েছে। দুর্বৃত্তরাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

তবে দায়ীদের শনাক্ত করার কাজ চলছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জাহিদুল কবীর বলেন, যারা ক্যাম্পাসের পরিবেশ নষ্ট করতে চায়, তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে। কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে মামলা দায়ের ও তদন্ত কমিটি গঠন করছে।

রাজশাহী উপশহরের সুজানগর উত্তরপাড়া এলাকায় শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দিরে সরস্বতী পূজার আয়োজক ‘মহাসমাবেশ সংঘের’ সাধারণ সম্পাদক জগদীশ রবিদাস হামলার বিষয়ে অভিযোগ করেন। তিনি জানান, মণ্ডপে প্রতিমা থাকায় শুক্রবার দুপুরে তাঁরা সাউন্ড বক্সে গান বাজাচ্ছিলেন। এ সময় মণ্ডপের পাশের বাড়ির সানু (৩০) ও তাঁর ভাই সান্টু ইসলাম (২৪) বাধা দেন। বিকেলে প্রতিমা বিসর্জনের কথা থাকলেও সানু ও সান্টু দুপুরেই প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার জন্য তাঁদের চাপ দেন। এ সময় তাঁদের সঙ্গে ভক্তদের বাগিবতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে দুই ভাই লোকজন নিয়ে এসে মণ্ডপে হামলা চালায়।


মন্তব্য