kalerkantho


সিলেটে শুরু হচ্ছে বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎসব

সিলেট অফিস   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সিলেটে শুরু হচ্ছে বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎসব

‘মানবিক সাধনায় বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎসব’—এই স্লোগানে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে সিলেটে শুরু হচ্ছে ১০  দিনব্যাপী সংস্কৃতি উৎসব। নগরের মাছিমপুরে আবুল মাল আবদুল মুহিত ক্রীড়া কমপ্লেক্সে এ উৎসব শুরু হবে।

এতে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত ও নেপালের খ্যাতিমান কবি, সাহিত্যিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা অংশ নেবেন। বেঙ্গল ফাউন্ডেশন এ উৎসবের আয়োজন করেছে।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে সিলেটের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এ সময় বক্তব্য দেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ও জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আবদুল মোমেন, জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদিন, বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের ও মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩ মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত পর্যন্ত চলবে এ উৎসব। উৎসবের উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এ ছাড়া উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কালাম আবদুল নাসের চৌধুরী প্রমুখ।

উদ্যোক্তারা জানান, ১০ দিনব্যাপী এ উৎসবে ৩৮৩ জন সংগীতশিল্পী ছাড়াও বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের শিল্পী, কবি ও লেখকরা অংশ নেবেন। এর মধ্যে রয়েছেন হাসান আজিজুল হক, ইমদাদুল হক মিলন, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আনিসুল হক, রফিকুন নবী, মনিরুল ইসলাম, সমরেশ মজুমদার, শাওলি মিত্র, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, অদিতি মহসিন, চন্দনা মজুমদার, কুদ্দুস বয়াতি প্রমুখ।

উৎসবে জাহিদুল করিম অঞ্জনের ‘মেঘমল্লার’, মোরশেদুল ইসলামের ‘অনিল বাগচীর একদিন’, তারেক মাসুদের ‘রানওয়ে’, ঋত্বিক ঘটকের ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘টেলিভিশন’, নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চুর ‘গেরিলা’, রুবাইয়াৎ হোসেনের ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’ ও ছোটদের ছবিসহ মোট ১৪টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। এ ছাড়া বাংলাদেশের ১০টি জেলার কারুশিল্প নিয়ে কারুমেলা এবং সিলেটের ধামাইল, মণিপুরি নৃত্যসহ বিভিন্ন প্রদর্শনী উৎসবে থাকছে।

উৎসব সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে উল্লেখ করে আয়োজকরা জানান, www.bengalculturalfest.com-এ লগ ইন করে নাম, মোবাইল নম্বর ও পরিচয়পত্রের নম্বর প্রদান করে যে কেউ বিনা মূল্যে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবে। ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে নিবন্ধন শুরু হবে। শিক্ষার্থীদের নিবন্ধনের জন্য বুথের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।


মন্তব্য