kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দুলাভাইকে খুন করে থানায় শ্যালক

পুলিশের বিরুদ্ধে আলামত নষ্টের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



চট্টগ্রামে অঞ্জন ধর নামের এক ব্যক্তি খুনের ঘটনায় তাঁর স্ত্রীকে দায়ী করেছে পরিবারের সদস্যরা। তাঁরা পুলিশের বিরুদ্ধে আলামত নষ্ট এবং অসহযোগিতা করারও অভিযোগ তুলেছে।

তবে পুলিশ এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

হত্যাকাণ্ডের পর অঞ্জনের শ্যালক বাবুল ধর থানায় হাজির হয়ে দুলাভাইকে হত্যার দায় স্বীকার করেন।

গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন নিহত অঞ্জনের মা সমিতা রানী ধর। তিনি পুত্রবধূ প্রিয়াংকা ধরের বিরুদ্ধে ছেলে হত্যার অভিযোগ এনেছেন। প্রিয়াংকা ছাড়াও এই হত্যাকাণ্ডে আরো কয়েকজন লোক জড়িত বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সন্তান হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করে সমিতা রানী ধর বলেন, ‘আমরা মনে করেছিলাম সুষ্ঠু বিচার পাব। কিন্তু নগরীর কোতোয়ালি থানা পুলিশ আমাদের সহযোগিতা করছে না। তাদের একতরফা কর্মকাণ্ড আমাদের ভাবিয়ে তুলেছে। ’ তিনি দাবি করেন, পুলিশ ১৯ অক্টোবর রাতে হত্যাকাণ্ডের আলামত নষ্ট করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর কোতোয়ালি থানার আফিম গলিতে জনৈক নেপাল বাবুর বাসার পঞ্চম তলার ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে অঞ্জন ধরের বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে অঞ্জনের শ্যালক বাবুল ধরকে থানায় গিয়ে নিজেই দুলাভাইকে খুন করার কথা পুলিশকে জানান। ওই ঘটনায় ভাইকে আসামি করে থানায় মামলা করেন অঞ্জনের স্ত্রী প্রিয়াংকা।


মন্তব্য