kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


প্লট দুর্নীতি মামলায় মির্জা আব্বাসসহ ৩ জনের বিচার শুরু

আদালত প্রতিবেদক   

২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



প্লট বরাদ্দে দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের মামলায় সাবেক গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ তিনজনের বিচার শুরুর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার ৪ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আমিনুল ইসলাম এ মামলায় অভিযোগ গঠন করে আগামী ১ জানুয়ারি সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করেছেন।

দুদকের আইনজীবী রুহুল ইসলাম খান জানান, মির্জা আব্বাস ছাড়াও মামলার অন্য দুই আসামি হলেন সাবেক গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবির এবং একই মন্ত্রণালয়ের সাবেক যুগ্ম সচিব (বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত) বিজন কান্তি সরকার। এ মামলায় আগে পাঁচজন আসামি থাকলেও অন্য দুই আসামি জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের হিসাবরক্ষক মনসুর আলম ও হিসাব সহকারী মতিয়ার রহমানকে অব্যাহতির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মির্জা আব্বাসের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ‘মির্জা আব্বাস আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন। বিচারকের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচার চেয়েছেন। ’

২০০৬ সালে তৎকালীন গৃহায়ণ প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবিরের হস্তক্ষেপে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন সমবায় সমিতি লিমিটেড নামের একটি সংগঠনকে নিয়ম বহির্ভূতভাবে রাজধানীর মিরপুর ৮ নম্বরে সাত একরের একটি প্লট বরাদ্দ দেওয়ার অভিযোগে ২০১৪ সালের ৬ মার্চ শাহবাগ থানায় এ মামলা হয়। প্রথমে মামলায় আসামি ছিলেন চারজন। তাঁরা হলেন—সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবির, জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের সদস্য (ভূমি ও সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা) আজহারুল হক, জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের হিসাবরক্ষক মনুসর আলম ও হিসাব সহকারী মতিয়ার রহমান। পরের বছর ১২ ফেব্রুয়ারি মির্জা আব্বাস ও বিজন কান্তি সরকারসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন দুদকের উপপরিচালক হামিদুল হাসান। আজহারুল হকের নাম ওই অভিযোগপত্রে ছিল না।

আইনজীবী রুহুল ইসলাম খান বলেন, ‘বিচারক মনুসর আলম ও মতিয়ার রহমানকে অব্যাহতি দিয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন। আলমগীর কবির ও বিজন কান্তি পলাতক আছেন। ’


মন্তব্য