kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে জয়

২০২১ সালের মধ্যে ৯০ শতাংশ সেবা তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



২০২১ সালের মধ্যে ৯০ শতাংশ সেবা তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, ২০২১ সালের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সেবার ৯০ শতাংশই তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রদান করা হবে।

গতকাল বুধবার বিকেলে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৬-এর প্রথম দিনে মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে জয় এ কথা বলেন।

কনফারেন্সে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সজীব ওয়াজেদ জয়। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় নেপাল, ভুটান, সৌদি আরবসহ সাতটি দেশের সাতজন মন্ত্রী মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে অংশ নেন।

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা আগামী ২০২১ সালকে লক্ষ্য করে নেওয়া বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে বলেন, ৯০ শতাংশ নাগরিক সেবা ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে ২০২১ সালের মধ্যে। চারটি ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ—ডিজিটাল সরকার, নাগরিক সেবা, মানবসম্পদ উন্নয়ন ও আইটি শিল্প বিকাশ।

 

২০০৮ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরে সজীব ওয়াজেদ বলেন, অতীতে বাংলাদেশে দারিদ্র্যের হার ছিল ৪০ শতাংশ, এটি কমে এখন ২৩ শতাংশ। সাক্ষরতার হার ছিল ৪৯ শতাংশ, এটি এখন ৭১ শতাংশ। বিদ্যুৎ সেবা পেত ২৭ শতাংশ, এখন পায় ৭৫ শতাংশ। ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল দশমিক ৪ শতাংশ, এখন তা ৪০ শতাংশ। মোবাইল ব্যবহারকারী ছিল ২০ লাখ, এখন তা এক কোটি ৩০ লাখের বেশি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারী ছিল সামান্য, এখন ২০ লাখের বেশি। ই-সার্ভিস হাতে গোনা কয়েকটি ছিল, এখন দুই শরও বেশি মানুষ এ সেবা পায়।

এর আগে সাকালে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপী তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক মেলা ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৬’-এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সুত্র : বাসস।


মন্তব্য