kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


‘খুলনা জেল ভেঙে আরিফকে মুক্ত করার পরিকল্পনা ছিল ফারুকের’

বিডিনিউজ   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



দুই বিচারক হত্যায় জেএমবি নেতা আসাদুল ইসলাম আরিফের ফাঁসির দণ্ড কার্যকর করার আগেই জেল ভেঙে তাকে মুক্ত করার পরিকল্পনা ছিল ভারতে গ্রেপ্তার নিষিদ্ধ সংগঠনটির নেতা আনোয়ার হোসেন ফারুকের। কিন্তু এর আগেই ফারুক গ্রেপ্তার হওয়ায় পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত হয়নি বলে জানিয়েছেন ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থার (এনআইএ) এক শীর্ষ কর্মকর্তা।

এক দশক আগে ঝালকাঠিতে দুই বিচারক হত্যায় গত রবিবার রাতে খুলনা জেলা কারাগারে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে আরিফের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

আর কলকাতা পুলিশের একটি বিশেষ টাস্কফোর্স গত মাসে পশ্চিমবঙ্গ ও আসামের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ফারুকসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে। ফারুককে ধরা হয় বনগাঁওয়ের বাগদা রোড থেকে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এনআইএর ওই কর্মকর্তা জানান, গ্রেপ্তারের পর ফারুক জানিয়েছে, উচ্চ আদালতে আরিফের মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকার খবর পেয়ে জেল ভেঙে তাকে মুক্ত করার পরিকল্পনা ছিল তার। ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘সীমানা পেরিয়ে সড়কপথে তিন ঘণ্টা দূরের খুলনা জেলে হামলার জন্যই ফারুক পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁও-বাগদা রোডের একটি বাড়িতে উঠেছিল। উদ্দেশ্য ছিল সুযোগমতো সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে যাওয়া। তার পরিকল্পনা ছিল কয়েকটি বিস্ফোরণের মাধ্যমে খুলনা জেলে হামলা চালিয়ে আরিফকে মুক্ত করার। ’

দুই বছর আগে ময়মনসিংহের ত্রিশালে প্রিজন ভ্যানে হামলা চালিয়ে পুলিশ হত্যা করে আসামি ছিনতাইয়ের ‘হোতা’ ফারুক হোসেন ওরফে জামাই ফারুক বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।


মন্তব্য