kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আজ বরিশালে যাচ্ছেন বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল   

১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



দারিদ্র্যজয়ের গল্প শুনবেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। গল্প শুনবেন খোদ তৃণমূলের উপকারভোগীদের কাছ থেকে।

প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন দেখতে গ্রাম ঘুরে দেখবেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় তিনি বরিশালে আসছেন। সেখানে বাবুগঞ্জের দক্ষিণ রাকুদিয়ায় মিশে যাবেন সাধারণ মানুষের কাতারে। এ ছাড়া সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প ও বহুমুখী দুর্যোগ আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শনে যাওয়ার পরিকল্পনাও রয়েছে তাঁর।

জানা গেছে, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের আওতায় একটি স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ)। সংস্থাটি বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় গ্রামের মানুষকে স্বাবলম্বী করে তোলা, নবম-দশম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করা বেকার তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে চাকরি পাওয়ার ব্যবস্থা করার মতো কাজ করে থাকে। ‘নতুন জীবন লাইভলিহুড ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্টের (এনজেএলআইপি)’ আওতাধীন বাবুগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রাকুদিয়া গ্রাম পরিদর্শনে যাবেন তিনি। সেখানকার মানুষের গল্প শুনতে ও ভাগ্যবদলের চিত্র দেখতে যাবেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট।

এসডিএফের দেহেরগতি ইউনিয়নের সমন্বয়কারী (ক্লাস্টার ফেসিলেটর) নকিদুল ইসলাম বলেন, ইউনিয়নের এক হাজার ৮৪৭ জন নারী সমিতির মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়েছেন। সমিতিতে সঞ্চয়ের পাশাপাশি তাঁরা ঋণ নিয়ে গাভী ও মুরগি পালন, মাছ চাষ ও কৃষিকাজের মাধ্যমে নিজ নিজ স্থানে স্বাবলম্বী হয়েছেন। দেহেরগতির দক্ষিণ রাকুদিয়া গ্রামের ফরাজী বাড়ির স্বাবলম্বী শিউলী বেগম ও কোহিনূরের মুখ থেকে তাঁদের সাফল্যের কথা শুনবেন বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট।

জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান জানান, বরিশালের বাবুগঞ্জের রাকুদিয়া ও উজিরপুর উপজেলার ভরসাকাঠি গ্রামে আসবেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট। তিনি সকাল সাড়ে ৭টায় হেলিকপ্টারযোগে বরিশাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে বাবুগঞ্জ উপজেলার রাকুদিয়া গ্রাম সমিতির শাখা অফিস এবং উজিরপুর উপজেলার ভরসাকাঠি সাইক্লোন শেল্টার পরিদর্শনে যাবেন।


মন্তব্য