kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রাজশাহীতে চোলাই মদপানে তিন দিনে ছয়জনের মৃত্যু

মাইকিংয়েই দায়িত্ব শেষ পুলিশের

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



রাজশাহী নগরীতে চোলাই মদ পান করে ছয়জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গতকাল শনিবার দুপুর পর্যন্ত সময়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

একই সময়ে অসুস্থ হয়ে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে আরো অন্তত ২০ জন।

মৃত ছয়জন হলো নগরীর ফুদকীপাড়া এলাকার স্বপনের ছেলে দীপজল (২০), কুমারপাড়া এলাকার অজিতের ছেলে রতন (৫০), হেতেম খাঁ এলাকার কাশিনাথের ছেলে সুখেন (৪৫), রাজারহাতা এলাকার গোপালের ছেলে প্রভাত (৪০), মুন্সিডাঙ্গা এলাকার নাডু ও ডিঙ্গাডোবা এলাকার মটকু ডোম।

দুর্গোৎসবের সময় নগরীজুড়ে মাদকের ব্যবহার রোধে মাইকিং করা ছাড়া পুলিশ আর কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ করেছে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। তারা মনে করে, পুলিশ কার্যকর পদক্ষেপ নিলে গণহারে মাদক সেবন সম্ভব হতো না, আর এতগুলো লোক মারাও যেত না। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ছয়জনের মধ্যে গতকাল সকালে মারা গেছে রতন। প্রভাত মারা গেছে গত বৃহস্পতিবার সকালে এবং শুক্রবার মারা গেছে অন্য চারজন। স্থানীয় লোকজন বলছে, গত বুধবার বিজয়া দশমীর শোভযাত্রার আগে রাজশাহী নগরীর বিভিন্ন এলাকায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অনেকে চোলাই মদ পান করে। শোভাযাত্রার পর তাদের অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। অন্তত ৩০ জনকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সনাতন ধর্মাবলম্বী লোকজনের অভিযোগ, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে পুলিশকে ‘ম্যানেজ’ করেই নগরীর একাধিক চক্র পূজার সময় ব্যাপকভাবে মাদক বিক্রি করে। এতে করে গণহারে মাদক সেবন করারও সুযোগ পায় লোকজন। নিম্ন আয়ের লোকজনই দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরি চোলাই মদ পান করে। এতে অসুস্থ হয়ে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে।


মন্তব্য