kalerkantho


এবার রূপা হক ছায়া প্রতিমন্ত্রী

রংবেরং প্রতিবেদক   

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



এবার রূপা হক ছায়া প্রতিমন্ত্রী

টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকের পর এবার যুক্তরাজ্যের বিরোধী দল লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রিসভার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এমপি রূপা হক। গত বৃহস্পতিবার লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন তাঁকে এই পদে নিয়োগ দেন। রূপা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়বিষয়ক ছায়ামন্ত্রী ডায়ান অ্যাবোটের নেতৃত্বে কাজ করবেন।

এর আগে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আরেক এমপি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাগনি ও শেখ রেহানার ছোট মেয়ে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক শিক্ষাবিষয়ক ছায়া প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান।

যুক্তরাজ্যের বর্তমান পার্লামেন্টে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তিন এমপির আরেকজন রুশনারা আলী। তিনি ব্রিটিশ সরকারের বাংলাদেশবিষয়ক বিশেষ বাণিজ্য দূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এঁরা তিনজনই লেবার পার্টির এমপি।

ছায়া মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় রূপা হক তাঁর ফেসবুক পেজে বলেন, ‘স্বরাষ্ট্রবিষয়ক ছায়া প্রতিমন্ত্রী হিসেবে লেবার পার্টির অগ্রগামী দলে যুক্ত হতে পেরে আমি আনন্দিত। ক্ষমতাসীন টোরি সরকারকে চাপে রাখার জন্য আমাদের অনেক কাজ করতে হবে। ’ রূপা হকের আদি বাড়ি পাবনা শহরের মকছেদপুরে।

যুক্তরাজ্যে সংসদীয় গণতন্ত্রের রীতি অনুযায়ী সরকারকে জবাবদিহি করার জন্য সরকারের বিপরীতে বিরোধী দলও একটি মন্ত্রিসভা গঠন করে।

এটিকে বলা হয় ছায়া মন্ত্রিসভা (শ্যাডো কেবিনেট)। ছায়া মন্ত্রিসভায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের কাজ হলো সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীদের সিদ্ধান্ত ও কার্যক্রমের পর্যবেক্ষণ, বিশ্লেষণ ও ভুলত্রুটি তুলে ধরে চ্যালেঞ্জ করা। সেই সঙ্গে নিজ দলের পক্ষে বিকল্প প্রস্তাব উপস্থাপন করা। দল ক্ষমতায় গেলে ছায়ামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনকারীরাই মন্ত্রিত্বের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিবেচিত হন।

যুক্তরাজ্য সরকারের দপ্তরগুলোতে একজন মন্ত্রীর অধীনে সাধারণত চারজন করে প্রতিমন্ত্রী দায়িত্ব পালন করেন। একইভাবে ছায়া মন্ত্রিসভায়ও একজন ছায়ামন্ত্রীর অধীন চারজন করে ছায়া প্রতিমন্ত্রী রাখা হয়। সূত্র : বাসস।


মন্তব্য