kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আওয়ামী লীগের সম্মেলন

ঘোষণাপত্রে ১০ মেগাপ্রকল্পের উল্লেখ থাকছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



আগামী সম্মেলনে আওয়ামী লীগের ঘোষণাপত্র যুগোপযোগী করা হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। তিনি বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগের আসন্ন ২০তম জাতীয় সম্মেলনের ঘোষণাপত্রে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধিশালী দেশ গড়ে তুলতে ১০ মেগাপ্রকল্পের ঘোষণা থাকবে।

প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করা হবে ২০৪০ সালের মধ্যে। এগুলোর কাজ সমাপ্ত হলে দেশের অর্থনৈতিক ভিত আরো মজবুত হবে। ’

গতকাল বৃহস্পতিবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে শেখ সেলিম এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে গঠিত ঘোষণাপত্র উপ-পরিষদের এক বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণাপত্র উপপরিষদের আহ্বায়ক শেখ সেলিম বলেন, ‘দেশকে আত্মনির্ভরশীল হিসেবে গড়ে তোলার দিকনির্দেশনাসহ ঘোষণাপত্র চূড়ান্ত হতে যাচ্ছে। এর আলোকে আওয়ামী লীগের আগামী নির্বাচনের ইশতেহার তৈরি করা হবে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কথাটি বরাবরের মতো এবারও আমাদের ঘোষণাপত্রে থাকবে। দেশে একজন যুদ্ধাপরাধী থাকা পর্যন্ত বিচারকাজ চলবে। ’

শেখ সেলিম বলেন, ‘আওয়ামী লীগের ঘোষণাপত্রে সামাজিক নিরাপত্তার বিষয়টি রাখা হয়েছে। সমাজে ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য দূরীকরণে সরকারের গৃহীত পদক্ষপের কথাও উল্লেখ থাকবে। ’ তিনি আরো বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সমুদ্র জয় করেছি। সমুদ্রে যে প্রচুর পরিমাণ ঐশ্বর্য রয়েছে তা ব্যবহারের প্রক্রিয়াও ঘোষণাপত্রে থাকবে। ’

বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা মতিয়া চৌধুরী, মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুর রাজ্জাক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন প্রমুখ।

‘মোসাহেবি করবেন না’ : জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে সংগঠনের অতি-উৎসাহী নেতাকর্মীদের সতর্ক করেছেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘জাতীয় সম্মেলনে কোনো নেতার পক্ষে মোসাহেবি-চামচামি করে তাঁর ক্ষতি করবেন না। আমরা কেউ কারো প্রতিদ্বন্দ্বী নই, কেউ প্রার্থীও নই। অতি-উৎসাহী সেজে কাউকে প্রার্থী বানালে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’ গতকাল রাজধানীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে দলের সম্মেলন উপলক্ষে গঠিত দপ্তর উপকমিটির এক বৈঠকে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, আব্দুস সোবহান গোলাপ, আমিনুল ইসলাম আমিন প্রমুখ।


মন্তব্য