kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তিন স্থানে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

অস্ত্রের কোপে আহত ২

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর এবং লক্ষ্মীপুর ও হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



সদরপুর উপজেলার চরনাসিরপুর গ্রামে গত সোমবার রাতে ডাকাতের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জসীম মাতব্বর (৫৫) নামের এক গৃহকর্তা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে সদরপুর থানায় অজ্ঞাতপরিচয় ১০-১২ জনকে আসামি করে একটি ডাকাতি করা মামলা হয়েছে।

আহত জসীম মাতব্বর ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আহতের ছেলে মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল জানান, সোমবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে ১০-১২ জনের একদল মুখোশধারী ডাকাত ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্রের মুখে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে প্রায় ২৭ ভরি স্বর্ণালংকার ও চার লাখ টাকা লুট করে। এ সময় বাধা দিতে গেলে ডাকাতরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে জসীমকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাঁকে প্রথমে সদরপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাঁকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এদিকে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে দুই বাড়িতে ডাকাতি ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা টাকা দুই বাড়ি থেকে টাকা, স্বর্ণালংকারসহ লক্ষাধিক টাকার মাল লুটে নেয়। এ ছাড়া আলী আহাম্মদ নামের এক গৃহকর্তাকে কুপিয়ে জখম করে ডাকাতদল। গত সোমবার রাতে উপজেলার ভাদুর ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের কামরুল ইসলাম ও আলী আহাম্মদের বাড়িতে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে সকালে লক্ষ্মীপুর জেলা সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) খন্দকার শাহ নেওয়াজ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এলাকাবাসী জানায়, ১০-১২ জন ডাকাত কামরুল ইসলাম ও আলী আহাম্মদের বাড়ির গেটের তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে। এ সময় বাধা দিলে গৃহকর্তা আলী আহাম্মদকে কুপিয়ে জখম করা হয়। পরে ডাকাতরা টাকা, স্বর্ণালংকারসহ বিভিন্ন মাল লুট করে নেয়। আলী  আহাম্মদকে রামগঞ্জ আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রামগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সোলায়মান চৌধুরী বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত দুই পরিবারকে থানায় মামলা করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ডাকাতদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ কাজ করছে।

এ ছাড়া হবিগঞ্জে বাহুবল উপজেলার রশিদপুর চা বাগানের উপমহাব্যবস্থাপকের বড় বাংলোতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। সংঘবদ্ধ ডাকাতদল টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোনসেট, ক্রেডিট কার্ড, আসবাব, একটি প্রাইভেট কারসহ ১৫ লাখ টাকার মাল লুট করেছে বলে দাবি করা হয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বাগান কর্তৃপক্ষ।


মন্তব্য