kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পারিবারিক কলহ

নরসিংদীতে মাকে কুপিয়ে হত্যা করে ছেলে পলাতক

নিজস্ব প্রতিবেদক, নরসিংদী   

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



নরসিংদীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে এক যুবক মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে জানা গেছে। একই সঙ্গে বাবাকেও কুপিয়ে জখম করেছে সে।

গতকাল সোমবার বিকেলে সদর উপজেলার তুলসীপুর গ্রামে এই নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটে।

নিহত নারীর নাম জমিলা খাতুন (৪৮)। মুমূর্ষু অবস্থায় তাঁর স্বামী মতি মিয়াকে (৬০) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার পর অভিযুক্ত ছেলে শরীফ মিয়া (২৫) পালিয়ে যায়।  

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, শরীফ দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিল। তার পাঠানো টাকা দিয়ে বাবা মতি মিয়া বাড়িতে ঘর নির্মাণ করেন। তিনি স্থানীয় একটি সমবায় সমিতির ক্যাশিয়ার পদে চাকরি করতেন। এক বছর আগে মতি মিয়ার বিরুদ্ধে সমিতির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে। একপর্যায়ে পাওনা টাকার জন্য সমিতির কর্তাব্যক্তিরা তাঁর বসতবাড়ি দখলে নিয়ে নেন। বাড়িছাড়া হওয়ার পর পাশের একটি কলাবাগানে ঘর তুলে পরিবার নিয়ে থাকছিলেন তিনি। এ ঘটনায় শরীফ বাবার প্রতি ক্ষুব্ধ হয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। এর জের ধরে গতকাল বিকেলে মা ও বাবার সঙ্গে শরীফের ঝগড়া শুরু হয়। একপর্যায়ে সে দা দিয়ে বাবাকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। মা এসে ছেলেকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। সে কারণে শরীফ ক্ষুব্ধ হয়ে মাকেও কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই মায়ের মৃত্যু হয়।

নরসিংদী সদর মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফা জানান, শরীফের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার মায়ের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছেন বাবা।


মন্তব্য