kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জুবিলী ব্যাংকের শেয়ার হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



কুষ্টিয়ার জুবিলী ব্যাংকে বঙ্গবন্ধুর দুই খুনি কর্নেল (অব.) ফারুক ও কর্নেল (অব.) আব্দুর রশিদের ৮৫ হাজার শেয়ার বাজেয়াপ্ত করার আগ পর্যন্ত ব্যাংকটির কোনো ধরনের শেয়ার হস্তান্তর, লেনদেন ও প্রত্যাহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যৌথমূলধনী কম্পানি ও ফার্মসমূহের নিবন্ধকের কার্যালয় (আরজেএসসি)। এ ছাড়া ব্যাংকটির দাখিল করা রিটার্নগুলো রেকর্ডভুক্ত করার সব কাজও স্থগিত রাখা হয়েছে।

সম্প্রতি আরজেএসসির নিবন্ধক মো. আতিকুর রহমান খান স্বাক্ষরিত এক পত্রে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

১৯১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত ব্যাংকটি ১৯৯১ সালে কম্পানি আইনের আওতায় আরজেএসসিতে নিবন্ধিত। এই ব্যাংকে ২৫ টাকা মূল্যমানের ৮৫ হাজার শেয়ার রয়েছে বঙ্গবন্ধুর দুই খুনি ফারুক ও আব্দুর রশিদের নামে। বঙ্গবন্ধুর আরেক খুনি মেজর (অব.) বজলুল হুদাও ১৯৯২ সালে এ ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ছিলেন। উচ্চ আদালত বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সাজার রায়ে তাঁদের সম্পদ বাজেয়াপ্তির নির্দেশ দিয়েছেন। এর পর থেকে সরকার জুবিলী ব্যাংকে থাকা খুনিদের শেয়ার বাজেয়াপ্ত করার উদ্যোগ নিয়েছে।

খুনিদের শেয়ার বাজেয়াপ্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত কেউ যাতে জুবিলী ব্যাংকের শেয়ার বিক্রি বা অন্য কারো নামে হস্তান্তর বা প্রত্যাহার করতে না পারেন, সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগকে (বিএফআইডি) নির্দেশ দিয়েছেন।


মন্তব্য