kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ব্যবসায়ী হাসান খালেদের মৃত্যু

ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেয়ে দ্বিধায় পড়েছে তদন্তকারীরা

ওমর ফারুক   

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেয়ে দ্বিধায় পড়েছে তদন্তকারীরা

ব্যবসায়ী হাসান খালেদের মৃত্যু এখনো রহস্যাবৃত। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিনি পানিতে ডুবে মারা গেছেন।

তবে এ ভাষ্যে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না, তাঁকে হত্যা করা হয়েছে, নাকি তিনি আত্মহত্যা করেছেন। এ নিয়ে দ্বিধায় রয়েছে তদন্তকারীরা।

হাসান খালেদের স্বজনরা বলছে, তাঁকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ বুড়িগঙ্গা নদীতে ফেলা হয়েছে। হত্যাকারীদের শাস্তি দেখতে চায় তারা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) উপকমিশনার (ডিসি) মাসরুকুর রহমান খালেদ জানান, ‘ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়া গেছে। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। ’ ডাচ-বাংলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ছিলেন মো. হাসান খালেদ। গত ২৩ জুলাই সকালে ওষুধ কিনতে ধানমণ্ডির বাসা থেকে বের হন তিনি। ২৬ জুলাই দুপুরে কামরাঙ্গীরচর ও কেরানীগঞ্জ থানার মাঝামাঝি খোলামোড়ায় তাঁর মৃতদেহ পাওয়া যায়।

হাসান খালেদ বাসায় ফেরেননি দেখে ২৩ জুলাই রাতেই ধানমণ্ডি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তাঁর শ্যালক শরিফুল আলম। ২৬ জুলাই তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। আড়াই মাস পর গত সপ্তাহে রিপোর্ট হাতে পেয়েছে তদন্তকারীরা। গত ২ আগস্ট ধানমণ্ডি থানায় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন হাসান খালেদের ভাই মুরাদ হাসান। এজাহারে বলা হয়, হাসান খালেদকে পরিকল্পিতভাবে অপহরণ করে হত্যা করা হয়েছে। আট দিন পর মামলাটি ডিবিতে পাঠানো হয়।

মুরাদ হাসান গতকাল সোমবার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘পুলিশের তরফ থেকে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার কথা জানানো হয়েছে আমাদের। তারা জানিয়েছে, পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে—এমন রিপোর্ট পাওয়া গেছে। ’ তিনি বলেন, ‘বিষয়টির সঙ্গে আমরা একমত নই। কারণ তিনি ছোট মানুষ নন যে পানিতে পড়ে যাবেন। আর তাঁর ধানমণ্ডির বাসা থেকে বুড়িগঙ্গা অনেক দূরে। তিনি কেন সেখানে যাবেন? আমার জানা মতে তিনি সাঁতার জানতেন না। ’ মুরাদ বলেন, ‘আমার ভাই আত্মহত্যা করতে পারেন না। তাঁকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ বুড়িগঙ্গা নদীতে ফেলা হয়েছে বলে আমরা মনে করি। ভাইকে যারা হত্যা করেছে তাদের বিচার চাই। ’


মন্তব্য