kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রাজশাহী নগরের চার কিলোমিটার সড়ক

আট কোটি টাকায় টাইলস বসানো ফুটপাত দুই বছরেই লণ্ডভণ্ড

রফিকুল ইসলাম, রাজশাহী   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



আট কোটি টাকায় টাইলস বসানো ফুটপাত দুই বছরেই লণ্ডভণ্ড

রাজশাহী মহানগরীর অধিকাংশ ফুটপাতের বেহাল অবস্থা। পথচারীরা ফুটপাত দিয়ে না হেঁটে ব্যস্ততম সড়ক দিয়ে হাঁটে। ছবিটি গতকাল গ্রেটার রোড মসজিদের পাশ থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজশাহী নগরের প্রায় চার কিলোমিটার সড়কের দুই পাশের ফুটপাতে আট কোটি টাকা ব্যয়ে টাইলস বসানো হয় দুই বছর আগে। এরই মধ্যে ভেঙেচুরে গেছে এসব টাইলস।

এতে ফুটপাতের কোথাও কোথাও গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। আর কোথাও কোথাও ফুটপাতের তল দিয়ে যাওয়া নালার মুখ উন্মুক্ত হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। কিন্তু ফুটপাত সংস্কারে এখনো কোনো উদ্যোগ নেয়নি নগর সংস্থা।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘কম দামের টাইলস দিয়ে ফুটপাত নির্মাণ করা হয়েছে। এগুলো করা হয়েছে যেন ফুটপাত দেখতে সুন্দর লাগে। কিন্তু টাইলসগুলো কোনো কোনো স্থানে ভেঙে গেছে। এগুলো হয়েছে রাস্তার ধারের ভবন নির্মাণের কাজ করার সময় অথবা ভারী কোনো কিছু রাখার জন্য। ’

ফুটপাত সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে এই কর্মকর্তা বলেন, ‘ফুটপাত আপাতত সংস্কারের কোনো উদ্যোগ নেই। তবে বাজেট পেলে এগুলো নতুন করে ঢেলে সাজানো হবে। আগের ভুলগুলোও শোধরানো হবে। ’

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নগরের তালাইমারী থেকে ভদ্রা এবং রেলগেট থেকে ভেড়িপাড়ায় অবস্থিত পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) কার্যালয় পর্যন্ত সড়কের দুই পাশের ফুটপাতের টাইলস ভেঙেচুরে গেছে। কোথাও কোথাও টাইলস খসে পড়ায় মাটি বেরিয়ে এসেছে। কোথাও কোথাও টাইলস ভেঙে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া ফুটপাতের নিচ দিয়ে যাওয়া নালার মুখে বসানো লোহার পাত খুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে অথবা ভেঙে গেছে।

এলাকাবাসী জানায়, গত শুক্রবার দুপুরে কাদিরগঞ্জ গ্রেটার রোড এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় এক বৃদ্ধ পথচারী ফুটপাতের নিচ দিয়ে যাওয়া নালার ভাঙা মুখে পড়ে জখম হয়েছেন। পরে তাঁকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এর দুই দিন আগে নগরের বর্ণালি মোড় এলাকায় ফুটপাতের গর্তে পা পড়ে হুমড়ি খেয়ে রাস্তায় গিয়ে পড়ে আহত হন এক পথচারী। এ সময় দ্রুতগতিতে যাওয়া একটি বাসের চাকার নিচে পড়তে গিয়েও অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান ওই পথচারী।

নগরের কাদিরগঞ্জ এলাকার ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান বলেন, তাঁর দোকানের সামনে ফুটপাতের টাইলসগুলো ভেঙে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে। ভাঙা ওই স্থান দিয়ে যাওয়া-আসার সময় প্রায় প্রতিদিনই পথচারীরা দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে। বিষয়টি রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে জানানোও হয়েছে।

আরেক ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান পিন্টু বলেন, ফুটপাতের নিচ দিয়ে যাওয়া নালার মুখে যে লোহার পাত দেওয়া হয়েছে, সেগুলোও অত্যন্ত নিম্নমানের। তাঁর দোকানের সামনে পাশাপাশি নালার দুটি মুখের ওপরে বসানো লোহার পাত ভেঙে সেখানে গর্ত হয়ে আছে। এ গর্তে পড়ে প্রায়ই মানুষ আহত হচ্ছে। শিশুরা পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে; কিন্তু এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না সিটি করপোরেশন।

নগরের ভদ্রা এলাকার বাসিন্দা আবুল কালাম বলেন, টাইলস দিয়ে ঝকঝকে ফুটপাত নির্মাণের দুই বছরও হলো না, এরই মধ্যে সব ভেঙে লণ্ডভণ্ড হতে শুরু করেছে।


মন্তব্য