kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফ্লাইওভারে উল্টে গেল বাস ২০ যাত্রী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ফ্লাইওভারে উল্টে গেল বাস ২০ যাত্রী আহত

রাজধানীর মগবাজার ফ্লাইওভারের ওপর গতকাল গাজীপুর থেকে গুলিস্তানগামী যাত্রীবাহী একটি বাস উল্টে ২০ যাত্রী আহত হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীর মগবাজার ফ্লাইওভারে বাস উল্টে যাওয়ার ঘটনায় অন্তত ২০ যাত্রী আহত হয়েছে। গতকাল রবিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তাঁদের মধ্যে মো. রাসেল (২৪) ও জহুরুল ইসলাম (৪০) নামের দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ ও বাসযাত্রীরা জানায়, গাজীপুর থেকে গুলিস্তানগামী বাসটিতে ৪০-৫০ জন যাত্রী ছিল। চালক মোবাইল ফোনে কথা বলে প্রতিযোগিতা করে চালানোর কারণেই দুর্ঘটনা ঘটে। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বাসটি সরিয়ে নেওয়া হয়। প্রায় তিন ঘণ্টা পর ফ্লাইওভার যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

দুর্ঘটনাকবিলত বাসের যাত্রীরা জানায়, গাজীপুর থেকে গুলিস্তানগামী গাজীপুর পরিবহন ও আজমেরী পরিবহনের দুটি বাস ফ্লাইওভারে ওঠার আগ থেকেই প্রতিযোগিতা করছিল। ফ্লাইওভার থেকে নামার সময় গাজীপুর পরিবহনের বাসটি ওভারটেক করতে গিয়ে উল্টে যায়।

বাসটির যাত্রী আতাউর রহমান বলেন, ‘ড্রাইভার ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালাচ্ছিল। পেছনে থাকা আরেকটি বাসের সঙ্গে প্রতিযোগিতা চলছিল। ওভারটেক করতে গিয়ে গাড়িটি উল্টে যায়। ’

বিকেলে ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা দক্ষিণের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল হালিম বলেন, ‘দুটি বাস প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটায়। উল্টানোর পর বাস থেকে মবিল রাস্তায় পড়ে যায়। পরে আমরা পানি দিয়ে পরিষ্কার করি। না হলে মবিলে স্লিপ করে আরো দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। ’

রমনা থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, দুর্ঘটনার পর বাসের চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। রাস্তা পরিষ্কার করতে একটু সময় লেগেছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হলেও রাসেল ও জহুরুলকে ভর্তি রাখা হয়েছে। তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অর্থনীতি বিষয়ে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাসেলের বাসা যাত্রাবাড়ীর মীরহাজীরবাগে। বেরসকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জহুরুল থাকেন তেজগাঁও বিজি প্রেসের স্টাফ কোয়ার্টারে।


মন্তব্য