kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সৈয়দ হকের সৃষ্টি পথ দেখাবে জাতিকে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



সৈয়দ হকের সৃষ্টি পথ দেখাবে জাতিকে

সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক বাংলা সাহিত্যের সব শাখাকে সমৃদ্ধ করেছেন, বাঙালিকে উপহার দিয়েছেন নতুন সাহিত্যসম্ভার। তাঁর সৃষ্টিকর্ম জাতিকে পথ দেখাবে, অনুপ্রেরণা জোগাবে নতুন প্রজন্মকে।

গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় রাজধানীতে জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে সৈয়দ শামসুল হক স্মরণসভায় বক্তারা এ কথা বলেন।

বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত স্মরণসভায় বক্তারা সৈয়দ হকের সাহিত্যজীবনের নানা কাহিনী, তাঁর গদ্যের শৈলী, নাটকের সংলাপ ও কবিতা নিয়ে কথা বলেন। তাঁরা বলেন, তাঁর মৃত্যুতে সাহিত্যচর্চা, সমাজ, সংস্কৃতি ও রাজনীতির অপূরণীয় ক্ষতি হলো।

সভার শুরুতে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের বলেন, ‘সৈয়দ শামসুল হক ছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের সুহৃদ, সব কর্মের সহযাত্রী। তিনি ছিলেন বন্ধুর মতো, তিনি ছিলেন আমাদের অভিভাবক। ’

ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভায় কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন বলেন, সৈয়দ হক ‘অমৃতের পুত্র’। সাতচল্লিশ-পরবর্তী ধারায় যাঁরা বাংলা সাহিত্যের শক্তি ও শিল্পমান প্রতিষ্ঠা করেছেন, যাঁরা জাতির দিক নির্ধারণ করেছেন সৈয়দ শামসুল হক তাঁদের একজন।

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক বলেন, ‘তাঁর কবিতা, গল্প ও অন্যান্য রচনায় উঠে এসেছে বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ---ল ইতিহাস।

অনুষ্ঠানে নাট্যাভিনেত্রী ত্রপা মজুমদার সৈয়দ হকের ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’-এর ‘মাতবরের বউ’ চরিত্রটির সংলাপের অংশবিশেষ পাঠ করেন।

অভিনেতা আলী যাকের বলেন, ‘প্রতিটি নাটকে আমি তাঁকে নতুনভাবে আবিষ্কার করেছি। প্রতিটি নাটকেই তিনি ছিলেন অনন্য স্রষ্টা। ’

প্রধান অতিথি ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, সৈয়দ হকের মূল পরিচয় তিনি সাহিত্যিক ছিলেন। সাহিত্যের প্রতি তাঁর যে নিবেদন, তা খুব কম পাওয়া যায়। সারাক্ষণ অতৃপ্তিতে ভুগতেন তিনি, যা তাঁকে শুধু ব্যস্ত রাখত। তিনি বলেন, ‘সৈয়দ শামসুল হক যা কিছু স্পর্শ করেছেন, তাকেই সজীব করে তুলেছেন। অত্যন্ত সাহসী মানুষটির সাহিত্যের প্রতি যে ভালোবাসা দেখেছি, তার তুলনা নেই। বিশ্ব ধ্রুপদী সাহিত্যকে তিনি নিয়ে এসেছেন আমাদের মাঝে। ’

সাহিত্যবিশারদের জন্মবার্ষিকী : বাংলা একাডেমি আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে বাংলা সাহিত্যের গবেষক আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদের ১৪৫তম জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপন উপলক্ষে একক বক্তৃতানুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। বক্তব্য দেবেন অধ্যাপক মাহবুবুল হক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন একাডেমির সভাপতি ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।


মন্তব্য