kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


স্টার সিনেপ্লেক্সের যুগপূর্তিতে জমজমাট আয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



স্টার সিনেপ্লেক্সের  যুগপূর্তিতে জমজমাট আয়োজন

বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সের যুগপূর্তি উপলক্ষে গতকাল সন্ধ্যায় কেক কাটা হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স প্রেক্ষাগৃহ ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’ পূর্ণ করেছে এক যুগ। গতকাল শনিবার জাঁকজমক আয়োজন ছিল যুগপূর্তি উদ্‌যাপনে।

দর্শক, শুভাকাঙ্ক্ষী ও সুধীজনের পদচারণায় মুখর ছিল বসুন্ধরা সিটি শপিং মলের এ সর্বাধুনিক প্রেক্ষাগৃহ।

যুগপূর্তি  উপলক্ষে গতকাল  সন্ধ্যায় স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল বলেন, ‘সবার ভালোবাসা পেয়ে আমি আনন্দিত। তবে স্টার সিনেপ্লেক্সে যখন সিনেমা দেখানো শুরু হয়, তখন প্রথম দুই বছর অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। এ প্রেক্ষাগৃহ ভদ্রলোকদের সিনেমা হলমুখী করতে পেরেছে। ’ নতুন এ উদ্যোগে পাশে থাকার জন্য তিনি বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ জানান।

চলচ্চিত্র পরিচালক গিয়াসউদ্দীন সেলিম বলেন, ‘বিনোদনের ক্ষেত্রে স্টার সিনেপ্লেক্স নতুন দিগন্ত সৃষ্টি করেছে। সত্যিকার অর্থে দর্শককে আরাম করে সিনেমা দেখার ব্যবস্থা করেছে। রাজধানীতে এ রকম আরো ১০টি ভালো পরিবেশের প্রেক্ষাগৃহ চাই। ’

অভিনেতা মিশা সওদাগর বলেন, ‘যারা বলত সিনেমা দেখার মতো পরিবেশ নেই তাদের জন্য স্টার সিনেপ্লেক্স নির্মাণ একটি ভালো পদক্ষেপ। সিনেমার উন্নয়নের জন্য একটি হলের ভালো বিকল্প নেই। ’

তরুণ নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, ‘দর্শক সিনেমা দেখতে ভালো পরিবেশ চায়। স্টার সিনেপ্লেক্স  সিনেমাপ্রেমীদের সেই চাহিদা পূরণ করেছে। আশা করব সারা দেশে স্টার সিনেপ্লেক্সের মতো আরো ৫০টি হল হবে। ’

যুগপূর্তি উপলক্ষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কণ্ঠশিল্পী দিনাত জাহান মুন্নী বাংলা সিনেমার বিভিন্ন জনপ্রিয় গান পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা সিটি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের ইনচার্জ টি আই লতিফুল হোসেন, নাট্য নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী, অভিনেত্রী অপি করিম, চিত্রনায়িকা পপি, সোহানা সাবা, জলি ও চিত্রনায়ক রওশন প্রমুখ।

নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসংবলিত সাউন্ড সিস্টেমসহ নানা অভিনবত্ব নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল স্টার সিনেপ্লেক্স। হলিউডের সাড়াজাগানো সব ছবি আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনেই দেখার সুযোগ করে দিয়েছে এ প্রেক্ষাগৃহ। বর্তমানে একটি ভিআইপি হলসহ মোট ছয়টি হল রয়েছে এখানে। সম্প্রতি কক্সবাজারের হোটেল সায়মনে একটি হল চালু হয়েছে। আগামীতে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আরো কিছু হল চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে কর্তৃপক্ষের।


মন্তব্য