kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর সঙ্গে ভূমিকম্প দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার যৌথ অনুশীলন সমাপ্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর সঙ্গে ভূমিকম্প দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার যৌথ অনুশীলন সমাপ্ত

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ ও ইউনাইটেড স্টেটস আর্মি প্যাসিফিকের যৌথ উদ্যোগে ভূমিকম্প-পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রস্তুতির ওপর ‘ডিআরইই-২০১৬’ সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে আমন্ত্রিত অতিথি ও অংশগ্রহণকারীরা ফটোসেশনে অংশ নেন। ছবি : আইএসপিআর

ভূমিকম্প-পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রস্তুতির ওপর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ ও ইউনাইটেড স্টেটস আর্মি প্যাসিফিকের (ইউএসএআরপিএসি) সঙ্গে যৌথ অনুশীলন সমাপ্ত হয়েছে। ‘ডিজাস্টার রেসপন্স এক্সারসাইজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ (ড্রি) ২০১৬’ নামের এ অনুশীলনের সমাপনী অনুষ্ঠান গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকায় আর্মি গল্ফ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. মাহফুজুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্রের আর্মি ন্যাশনাল গার্ডের ডেপুটি কমান্ডিং জেনারেল ব্রায়েন ই সানথেইমার এবং ঊর্ধ্বতন সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আইএসপিআর জানায়, এ অনুশীলনে অংশগ্রহণকারী সংস্থাগুলোর মধ্যে ছিল সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ, স্বরাষ্ট্র, যোগাযোগ প্রভৃতি মন্ত্রণালয়, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, সিভিল এভিয়েশন, সিটি করপোরেশন (উত্তর ও দক্ষিণ) ইত্যাদি। এ ছাড়া ছিল ইউএস আর্মি প্যাসিফিক, যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি), বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, কেয়ার বাংলাদেশ, ডাব্লিউএফপি, ডাব্লিউএইচও, সিডিএমপি ও বিবিসি মিডিয়া অ্যাকশন। এ অনুশীলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল বাংলাদেশে ভূমিকম্প দুর্যোগ মোকাবিলায় সব সংস্থার কার্যক্রম অনুশীলন ও যথার্থতা যাচাই, যা সাবজেক্ট ম্যাটার এক্সপার্ট এক্সচেঞ্জ (এসএমইই), টেবিল টপ এক্সারসাইজ (টিটিএক্স) ও ফিল্ড ট্রেনিং এক্সারসাইজের (এফটিএক্স) মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়েছে।

অনুশীলনে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা ছাড়াও বিভিন্ন দেশি-বিদেশি ১০০টি সংস্থার প্রায় এক হাজার প্রতিনিধি অংশ নেন। এতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, চীন, মিয়ানমার, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও ভারতের প্রায় ৪৫ জন প্রতিনিধিও অংশ নেন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য একটি জাতীয় ডাটাবেইস ও ওয়েব পোর্টাল তৈরির কাজ চলছে। এ অনুশীলনে এটিও ব্যবহার করা হয়।

গত  ৪ ও ৫ অক্টোবর মাঠপর্যায়ের অনুশীলন পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়ার ধূপখোলা মাঠ ও উত্তরা ১৮ নম্বর সেক্টরে অনুষ্ঠিত হয়। ২০১০ সালে শুরু হওয়া ড্রি এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো।


মন্তব্য