kalerkantho


সংসদে সর্বসম্মত ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণ

শেখ হাসিনা এখন বিশ্বনেত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



শেখ হাসিনা এখন বিশ্বনেত্রী

জাতিসংঘে নারী-পুরুষের সমতা এবং নারীর ক্ষমতায়নের জন্য ‘প্লানেট ফিফটি ফিফটি চ্যাম্পিয়ন’ এবং ‘এজেন্ট অব চেইঞ্জ অ্যাওয়ার্ড’ প্রাপ্তির মাধ্যমে দেশ ও জাতির জন্য বিরল সম্মান অর্জন করায় গতকাল মঙ্গলবার সর্বসম্মতিক্রমে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা বলেছেন, দেশের গণ্ডি পেরিয়ে শেখ হাসিনা আজ বিশ্বনেত্রীতে পরিণত হয়েছেন।

গতকাল মাগরিবের নামাজের বিরতির পর কার্যপ্রণালী বিধির ১৪৭ বিধির আওতায় এই ধন্যবাদ প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন সরকারি দলের সিনিয়র সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। প্রথমে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং পরে ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনায় সংসদ সদস্যরা বলেন, দেশের একজন নেত্রী (খালেদা জিয়া) জ্বালাও-পোড়াও এবং মানুষ পুড়িয়ে মারার রাজনীতি করছেন। আরেকজন নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত মোকাবিলা করে দেশকে উন্নয়ন-অগ্রগতির মহাসড়কে তুলে এনে অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন। তিনি হচ্ছেন একজন দুঃসাহসী অভিযানের সফল নেত্রী। নিজের যোগ্যতা, সাহসিকতা, দূরদৃষ্টি ও প্রাজ্ঞতায় দেশের গণ্ডি পেরিয়ে শেখ হাসিনা আজ বিশ্বনেত্রীতে পরিণত হয়েছেন।

ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করে শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেন, এ অর্জন শেখ হাসিনার, দেশবাসীর। বিশ্বের সামনে দেশকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন তিনি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, শেখ হাসিনা একজন দুঃসাহসী অভিযানের সফল নেত্রী। সর্বহারা হয়ে দেশে ফিরে এসে আজ সারাবিশ্বের নেত্রী হয়েছেন।

জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই বিরল সম্মান অর্জনে গোটা বাংলাদেশ গর্বিত। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, শেখ হাসিনা বিশ্বের একমাত্র মুসলিম রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে ১৩ বছর ধরে সফল নেতৃত্ব দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।


মন্তব্য