kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


চলে গেলেন অধ্যাপক আহসানুল হক

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক মো. আহসানুল হক গতকাল রবিবার সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় নিজ বাসভবনে মারা গেছেন। মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এই শিক্ষকের বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

আহসানুল হকের ভাগ্নি একই বিভাগের অধ্যাপক নেভিন ফরিদা জানান, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তিনি মারা গেছেন। তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। আসরের নামাজের পর জানাজা শেষে আহসানুল হকের লাশ আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হয়।

নিবেদিত এই শিক্ষকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, অধ্যাপক ড. মো. আহসানুল হক ছিলেন একজন সৎ, নিষ্ঠাবান কৃতী শিক্ষক ও গবেষক। এ দেশের মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে, প্রগতিশীল আন্দোলন, সর্বোপরি স্বাধিকার ও স্বাধীনতা আন্দোলনে তিনি বিশেষ অবদান রেখেছেন।

১৯৯৪ সলের ৩০ জুন অধ্যাপক হিসেবে অবসর নেওয়ার আগে ইংরেজি বিভাগে ৩৪ বছর ধরে শিক্ষকতা করেছেন তিনি। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ, হলের প্রাধ্যক্ষ ও কলা অনুষদের ডিনসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

১৯৭১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তিনি মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠকের ভূমিকা পালন করেন। এ জন্য পাকিস্তানি সেনাবাহিনী তাঁর ওপর নির্যাতনও চালিয়েছিল।

আহসানুল হকের জন্ম ১৯৩৩ সালের ৯ জুলাই তখনকার পাবনার (বর্তমান সিরাজগঞ্জ) শাহজাদপুরে। তিনি ১৯৫৫ সালে কৃতিত্বের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে স্নাতক পাস করেন। পরের বছর একই বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নিয়ে প্রথমে নোয়াখালীর চৌমুহনী কলেজ এবং পরে জগন্নাথ কলেজে প্রভাষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।


মন্তব্য