kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সুজনের মানববন্ধনে বক্তারা

শান্তি প্রতিষ্ঠায় গান্ধীর অহিংস নীতির বিকল্প নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



শান্তি প্রতিষ্ঠায় গান্ধীর অহিংস নীতির বিকল্প নেই

আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষে রাজধানীর শাহবাগে গতকাল সুজন ও নির্বাচনী সহিংসতা প্রতিরোধে নাগরিক মানববন্ধন ও শান্তি পদযাত্রা করে। ছবি : কালের কণ্ঠ

বিদ্যমান বৈশ্বিক পরিস্থিতি দেশে দেশে শান্তি ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় মহাত্মা গান্ধীর অহিংস নীতির কোনো বিকল্প নেই বলে মত প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষে আয়োজিত মানববন্ধনের বক্তারা। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর শাহবাগে অনুষ্ঠিত ওই মানববন্ধনে বক্তারা শান্তির সপক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) ও নির্বাচনী সহিংসতা প্রতিরোধে নাগরিক (পিইভিই) এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।  

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজমুদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রোবায়েত ফেরদৌস, রাজনীতিবিদ সুভাষ সিংহ রায়, সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার, সুজন ঢাকা জেলা কমিটির সম্পাদক আবুল হাসানাত, বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলনের প্রতিনিধি মিহির বিশ্বাস প্রমুখ। মানববন্ধন কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করেন নাগরিক উদ্যোগ, এসো মিলে করি, বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলন, আদি ঢাকাবাসী ফোরাম, সুবন্ধন সামাজিক কল্যাণ সংগঠন।

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিংঘের অধিবেশনে জঙ্গিবাদমুক্ত সম্প্রীতির এক বিশ্ব গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন। তাঁর সঙ্গে একমত পোষণ করে আমরাও বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত শান্তি ও সম্প্রীতির দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। ’     

রোবায়েত ফেরদৌস বলেন, ‘মহাত্মা গান্ধী আজীবন অহিংসার বাণী প্রচার করে গেছেন। আজ ভারত-পাকিস্তান দুটো রাষ্ট্রই যুদ্ধের মুখোমুখি। কিন্তু যুদ্ধ শান্তি আনতে পারে না। শান্তির আনয়নের জন্য প্রয়োজন অহিংসার নীতি ধারণ করা। ’

মহাত্মা গান্ধী ছিলেন মানবতার নেতা : ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম প্রধান নেতা মহাত্মা গান্ধী শুধু একটি দেশ কিংবা জাতির নেতা ছিলেন না, তিনি ছিলেন সারা বিশ্বের মানবতার নেতা।  

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত শান্তি সমাবেশে বিশিষ্টজনরা গতকাল রবিবার এসব কথা বলেন। মহাত্মা গান্ধী স্মারক সদন আলোচনা সভার আয়োজন করে।

সংগঠনের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন বাপার যুগ্ম সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, সেবার নির্বাহী পরিচালক ডা. নুর উদ্দিন, হিরক সরদার প্রমুখ।


মন্তব্য