kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সার্ক সম্মেলন স্থগিত করল আয়োজক পাকিস্তান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা সার্কের ১৯তম শীর্ষ সম্মেলন স্থগিতের ঘোষণা দিল আয়োজক দেশ পাকিস্তান। গতকাল শুক্রবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে ওই সম্মেলন স্থগিতের ঘোষণা দেয়।

পাকিস্তানের ইসলামাবাদে আগামী ৯ ও ১০ নভেম্বর এ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান ও আফগানিস্তানের পর গতকাল শ্রীলঙ্কাও ওই সম্মেলনে যাবে না জানানোর পর পাকিস্তান এ ঘোষণা দিল। তবে এর আগেই চার দেশ না যাওয়ার ঘোষণা দেওয়ায় ওই সম্মেলন স্থগিত করে সংস্থার বর্তমান সভাপতি দেশ নেপাল।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, সব প্রস্তুতি সম্পন্ন সত্ত্বেও এ সম্মেলন স্থগিত করা হলো। সংস্থার বর্তমান সভাপতি দেশ নেপালের সঙ্গে আলোচনা করে শিগগিরই সম্মেলনের নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে। তবে সম্মেলন স্থগিত হওয়ার জন্য ভারতকেই একতরফা দোষারোপ করা হয় ওই বিবৃতিতে।

এর আগে গতকাল শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ওই সম্মেলন বর্জনের ঘোষণা দিয়ে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সার্ক সম্মেলনে যেকোনো সিদ্ধান্তই সর্বসম্মতিক্রমে নেওয়া প্রয়োজন। আর এর সঙ্গে জড়িত সব সদস্য রাষ্ট্র বা সরকার প্রধানের অংশ নেওয়া। কিন্তু বর্তমানে যা পরিস্থিতি তাতে সার্কের সদস্য সব রাষ্ট্র কখনোই ঐকমত্যে পৌঁছতে পারবে না।

শ্রীলঙ্কা বলছে, দক্ষিণ এশিয়ার মানুষের স্বার্থে অর্থপূর্ণ আঞ্চলিক সহযোগিতার জন্য শান্তি ও নিরাপত্তা অত্যাবশ্যকীয় উপাদান। সার্কের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে শ্রীলঙ্কা আশা করছে, আঞ্চলিক শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে, যাতে আঞ্চলিক সহযোগিতার পরিবেশ তৈরি হয়। শ্রীলঙ্কা সব ধরনের সন্ত্রাসবাদের নিন্দা জানায়।

এর আগে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারসহ অভ্যন্তরীণ কিছু বিষয়ে অব্যাহতভাবে পাকিস্তান নাক গলানোয় বাংলাদেশ সার্ক সম্মেলনে না যাওয়ার ঘোষণা দেয়। আর সম্প্রতি কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করে ভারত বলেছে, আঞ্চলিক সহযোগিতা ও সন্ত্রাস একসঙ্গে চলতে পারে না। ভুটান ও আফগানিস্তান বলছে, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে এ অঞ্চলে তৈরি হওয়া উত্তেজনার কারণে তারা পাকিস্তানে অনুষ্ঠেয় সার্ক শীর্ষ সম্মেলন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে। সার্কভুক্ত অন্য দেশগুলো হচ্ছে পাকিস্তান, নেপাল ও মালদ্বীপ। সূত্র : রেডিও পাকিস্তান ও টাইমস অব ইন্ডিয়া।


মন্তব্য