kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


এ বি এম মূসা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের অনুপ্রেরণা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



এ বি এম মূসা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের অনুপ্রেরণা

জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি মিলনায়তনে গতকাল সাংবাদিক এ বি এম মূসার স্মারকগ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেছেন, ‘বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে দেশে সাংবাদিকতাকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিলেন এ বি এম মূসা। স্মারকগ্রন্থ প্রকাশিত হওয়ায় তরুণ প্রজন্মের সাংবাদিকরা তাঁর কর্মজীবন সম্পর্কে আরো বেশি জানতে পারবেন। এতে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে তাঁরা আরো উৎসাহিত হবেন। ’

জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত ‘এ বি এম মূসা স্মারকগ্রন্থ প্রকাশনা উৎসব’ শীর্ষক আয়োজনে গতকাল শুক্রবার তিনি এসব কথা বলেন। উৎসবের আয়োজন করে এ বি এম মূসা-সেতারা মূসা ফাউন্ডেশন।

আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘সংবাদমাধ্যমের কাজ হলো বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করা। এ বি এম মূসা ঠিক এই কাজটিই করতেন। একান্ত নিষ্ঠার সঙ্গে সংবাদ ১০ দিকে পৌঁছে দিতেন। ’

দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার বলেন, ‘সাংবাদিকতায় এক উজ্জ্বল নক্ষত্র এ বি এম মূসা। আপসহীন সাংবাদিকতার মূলমন্ত্র ধারণ করলে তাঁকে আমরা প্রকৃতভাবে স্মরণ করতে পারব। পাছে লোকে কিছু বলে তা নিয়ে কখনোই ভ্রুক্ষেপ করতেন না মূসা ভাই। সহজভাবে অকপটে সত্যকে উচ্চারণ করেছেন সাহসের সঙ্গে। ’ পিআইবি থেকে এ বি এম মূসার স্মরণে আরো একটি স্মারকগ্রন্থ প্রকাশের ঘোষণা দেন তিনি।

প্রধান তথ্য কমিশনার অধ্যাপক ড. গোলাম রহমানের সভাপতিত্বে প্রকাশনা উৎসবে আরো বক্তব্য দেন লেখক, কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান, নিউজ টুডের সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, হলিডে পত্রিকার সম্পাদক সৈয়দ কামালউদ্দিন, সাংবাদিক কবি হাসান হাফিজ, প্রবীণ ক্রীড়া সাংবাদিক মুহাম্মদ কামরুজ্জামান, বিএফইউজের মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রোবায়েত ফেরদৌস, মাওলা ব্রাদাসের প্রকাশক আহমেদ মকসুদুল হক, প্রয়াত সাংবাদিক এ বি এম মূসার কন্যা সাংবাদিক ঝুমা পারভীন সুলতানা প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সম্পাদিত এ বি এম মূসা স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এটি প্রকাশ করেছে মাওলা ব্রাদার্স। স্মারকগ্রন্থে প্রয়াত প্রবীণ সাংবাদিক এ বি এম মূসার বর্ণাঢ্য জীবনের নানা স্মৃতি তুলে ধরে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের লেখা নিয়ে ৩২০ পৃষ্ঠার স্মৃতিগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ৮৩ বছর বয়সে প্রখ্যাত সাংবাদিক এ বি এম মূসা মারা যান।


মন্তব্য