kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ধর্ষণের বিচার সালিসে

নান্দাইলে অভিযুক্তকে লাঠিপেটা, ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের বিচার সালিসে করা হয়েছে। অভিযুক্তকে লাঠিপেটা ও ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আইন অনুযায়ী, এ ধরনের অপরাধের বিচার সালিসে করা যায় না।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঈশ্বরগঞ্জ-আঠারবাড়ী সড়কে অটোরিকশা চালান ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মহেষপুর গ্রামের মাহতাব উদ্দিনের ছেলে রতন মিয়া (২৮)। গত বুধবার রাত ৩টার দিকে তাঁকে নান্দাইলের একটি বাড়িতে আটকে রাখা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী খোকন তাঁর লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। পরে অভিযুক্তের পরিবারের লোকজনকে ডেকে এনে সালিস বসান।

এলাকার বেশ কয়েকজন যুবক জানায়, সাংবাদিকরা খবর পাওয়ায় ইউপি সদস্য ওই মেয়ের পরিবারকে তড়িঘড়ি অন্যত্র পাঠিয়ে দেন।

প্রতিবেশীরা জানায়, মেয়েটির পরিবার অত্যন্ত দুস্থ ও অসহায়। বেশ কয়েক বছর আগে দিনমজুর বাবা মারা যাওয়ার পর মা অন্যত্র বিয়ে করেন। দাদির আশ্রয়ে রয়েছে। সালিসে উপস্থিত কয়েকজন জানায়, মেয়েটি নির্যাতনের কথা বললেও কোনো কর্ণপাত করেননি সালিসকারীরা।

নান্দাইল থানার ওসি আতাউর রহমান বলেন, ‘দফাদারকে থানায় আসতে বলেছি। বিস্তারিত শুনে ব্যবস্থা নেব। ’


মন্তব্য