kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আশুলিয়ায় ৬১১ পাখি জব্দ এক ব্যক্তি আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



আশুলিয়ায় ৬১১ পাখি জব্দ এক ব্যক্তি আটক

সাভারের জিরাবো এলাকায় চোরা শিকারিদের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রজাতির ছয় শতাধিক পাখি জব্দ করার পর সেগুলো গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল এলাকায় খোলা আকাশে ছেড়ে দেয় বন বিভাগ। ছবি : কালের কণ্ঠ

ঢাকার সাভারের আশুলিয়া থেকে ৬১১টি বন্য পাখিসহ লাল মিয়া নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে ঢাকা বন বিভাগ কর্তৃপক্ষ। সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাতে আশুলিয়ার জিরাবো এলাকা থেকে লাল মিয়াকে আটক এবং তার কাছে থাকা পাখিগুলো জব্দ করা হয়।

ঢাকা বন বিভাগের বন সংরক্ষণ কর্মকর্তা অসিত রঞ্জন বলেন, জব্দকৃত পাখির মধ্যে রয়েছে তোতা, মুনিয়া, ময়না ও টিয়াসহ বিভিন্ন প্রজাতির পাখি। আটক লাল মিয়া (৩৮) শেরপুর জেলার গোবিন্দগঞ্জ এলাকার আফাজ উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

অসিত রঞ্জন জানান, উত্তরবঙ্গ থেকে একটি চক্র বাসে করে বিপুলসংখ্যক বন্য পাখি নিয়ে ঢাকায় আসছে—এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আশুলিয়ার জিরবো এলাকায় অভিযান চালানো হয়। জিরাবো এলাকায় বন বিভাগের লোকজন পৌঁছার আগেই পাখি পাচারচক্রটি বাস থেকে পাখিগুলো নামিয়ে ফেলে এবং স্থানীয় একটি টং দোকানে পাখিগুলো লুকিয়ে রাখার চেষ্টা চালায়। এ সময় বন বিভাগের কর্মকর্তারা ওই টং দোকান থেকে ৩০০টি মুনিয়া, ৮০টি টিয়া, ২৩০টি তোতা ও একটি ময়নাসহ ৬১১টি পাখি জব্দ করেন। একই সঙ্গে পাখি সংগ্রহ ও বিক্রি করার অপরাধে লাল মিয়াকে আটক করা হয়। পরে দুটি পাখি মারা যায়। আটক ব্যক্তি পাখি পাচারকারী চক্রের দালাল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বন্য প্রাণী পরিদর্শক অসীম মল্লিক জানান, পাখিগুলো রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বন বিভাগের প্রধান কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। কোনো উদ্যান বা বনাঞ্চলে পাখিগুলো অবমুক্ত করা হবে।


মন্তব্য