kalerkantho


হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ

১. বুক ব্যথা : হার্ট অ্যাটাক হলে সবচেয়ে পরিচিত যে লক্ষণটি দেখা যায় তা হলো, বুক ব্যথা। এ ছাড়া বুকে প্রচণ্ড অসুবিধা বোধ হবে।

অনেকেই এ ব্যথার সঙ্গে গ্যাস সমস্যাকে গুলিয়ে ফেলেন। এ কারণে বুক ব্যথা হলে সতর্ক হতে হবে। এ ক্ষেত্রে বুক ব্যথার মাত্রা যদি বেশি হয়, তাহলে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা যাচাই করতে হবে।

২. বুকে চাপ বোধ হওয়া : বুকে ব্যথার পাশাপাশি যদি প্রচণ্ড চাপ বোধ হয়, তাহলে হার্ট অ্যাটাকের শঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। এ ক্ষেত্রে ৩০ সেকেন্ডের বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। অর্থাৎ ৩০ সেকেন্ড ধরে যদি বুকে চাপ অনুভূত হয় এবং প্রচণ্ড অস্বস্তি বোধ হয়, তাহলে হার্ট অ্যাটাক হয়েছে কি না, বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে এবং প্রয়োজনে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি হতে হবে।

৩. কাঁধে ব্যথা : হার্ট অ্যাটাকে অনেকের বুকের বদলে কাঁধেও ব্যথা হতে পারে। এরপর সে ব্যথা বাহু, ঘাড়, চোয়াল, পেট ও পিঠে ছড়িয়ে পড়তে পারে। এ ক্ষেত্রে ব্যথা খুব মারাত্মক হবে এবং রোগী অসুবিধা বোধ করবে।

তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে এ ব্যথা খুব মারাত্মক নাও হতে পারে।

৪. পেটে অস্বস্তি ও জ্বালাপোড়া : পেটে প্রচণ্ড অস্বস্তি ও জ্বালাপোড়াও হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ। এ ছাড়া মাথা ব্যথা, বমি ভাব ও শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। এ ধরনের লক্ষণগুলো দেখা দিলে হার্ট অ্যাটাক হচ্ছে কি না, তা দ্রুত পরীক্ষা করতে হবে।

৫. ঘাম ও শ্বাস বন্ধ হয়ে আসা : গরম পরিবেশ কিংবা ঘেমে যাওয়ার কারণ না থাকা সত্ত্বেও যদি আপনার দেহ ঘামতে থাকে, তাহলে হার্ট অ্যাটাক কি না, তা নিশ্চিত হোন। এ ছাড়া আরো যে লক্ষণগুলো এর সঙ্গে প্রকাশ পাবে সেগুলো হলো হালকা বোধ হওয়া, বুকে অস্বস্তি ও শ্বাস বন্ধ হয়ে আসা।

৬. অচলাবস্থা : অনেক সময় কোনো নির্দিষ্ট লক্ষণ ছাড়াই হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে দেহে অচলাবস্থা দেখা দেবে। এ সময় নড়াচড়া করায় অস্বস্তি বোধ হবে এবং শরীর খারাপ বোধ হবে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব

 


মন্তব্য