kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফিটনেস

পেটের চর্বি থেকে মুক্তির উপায়

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



পেটের চর্বি থেকে মুক্তির উপায়

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শরীরের ওজন বাড়তে থাকে। আর পরিশ্রম বা ব্যায়ামের অভ্যাস না থাকলে তো কথাই নেই।

নিয়মিতভাবে বাড়তে থাকে ওজন। বড় বিষয় যে, এগিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে অন্য সব অঙ্গকে পেছনে ফেলে দেয় পেট। এ থেকে মুক্তির জন্য পরিশ্রমের বিকল্প নেই। পরিশ্রমের সঙ্গে যাদের সম্পর্ক নেই তাদের সামনে ব্যায়ামের বিকল্প নেই। আর চর্বি থেকে মুক্তির জন্য দৌড় বা হাঁটা সবচেয়ে ভালো ব্যায়াম। আরো যেসব ব্যায়ামে পেটের চর্বি থেকে মুক্তি পাওয়া যায় সে সম্পর্কে আজকের আলোচনা।

দৌড় : যখনই ব্যায়াম করা হয় তখনই শরীরে চর্বির পরিমাণ কমতে থাকে, সেই সঙ্গে ক্ষয় হয় ক্যালরির। সুতরাং ব্যায়ামে শুধু পেটের চর্বি কমে তা নয়, শরীরের অন্য অঙ্গ থেকে চর্বি দূর হতে থাকে। আর চর্বি কমানোর জন্য সবচেয়ে ভালো উপায় দৌড় এবং হাঁটা। এ কাজটি করতে আপনার তেমন কিছু প্রয়োজন নেই, শুধু দরকার একজোড়া কেডস। দৌড় এবং হাঁটার মধ্যে সবচেয়ে উপকারী দৌড়। এতে বেশি ক্যালরি ক্ষয় হয়। তাই বলে হাঁটাকে কম গুরুত্ব দিলে চলবে না। উপকারের লড়াইয়ে দৌড় থেকে খুব একটা পিছিয়ে নেই হাঁটা।

সাইকেল চালানো : সাইকেল চালানো দারুণ এক ব্যায়াম। এ ব্যায়ামে শরীরের চর্বি থেকে অনেকটা মুক্তি পাওয়া যায়। আর সাইকেল চালানোয় শুধু যে শরীরের উপকার হয় তা নয়, উপকার হয় মনের। কেননা এতে শহর বা গ্রামের অনেক কিছুই দেখা যায়। তবে উপকারটা নির্ভর করছে সাইকেলের গতির ওপর। পরীক্ষায় দেখা যায় একজন সাধারণ মানুষ ৩০ মিনিট সাইকেল চালানোয় ২৫০ থেকে ৫০০ ক্যালরি ক্ষয় হয়।

এক্সারসাইজ বল ক্রাউঞ্চ : এই ব্যায়ামে দারুণ উপকার পাওয়া যায়। কেননা শরীরের অনেক অঙ্গই এই ব্যায়ামের সঙ্গে যুক্ত। এ জন্য দরকার একটি এক্সারসাইজ বল। এক্সারসাইজ বলের ওপর চিত হয়ে এমনভাবে শুতে হবে যেন পিঠ বলের ওপর থাকে এবং পা দুটি মাটিতে থাকে। এবার হাত দুটি গুণ চিহ্নের মতো বুকের অথবা মাথার নিচে রাখতে হবে। এবার পিঠকে বলের স্পর্শে রেখে বুক এবং মাথা ওপরের দিকে তুলে আবার আগের অবস্থানে ফিরতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে অনুশীলনের সময় যেন বল স্থির থাকে।

 


মন্তব্য