kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যশোরে এসপি অফিস থেকে টেন্ডার বক্স গায়েব!

বিশেষ প্রতিনিধি, যশোর   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনকে লাঞ্ছিত করেছে এক যুবক। গতকাল বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে যশোরের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে দরপত্র জমা দিতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

গতকাল দুপুর ২টায় যশোর প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এই অভিযোগ করেন।  

সংবাদ সম্মেলনে শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘দুটি প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৪৬ কোটি টাকার দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ছিল গতকাল বুধবার দুপুর ১টা পর্যন্ত। চারটি যৌথ প্রতিষ্ঠানের হয়ে এসব দরপত্র জমা দিতে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে যাই। কিন্তু সেখানে কোনো টেন্ডার বাক্স না থাকায় দরপত্র জমা দিতে পারিনি। পুলিশ সুপারের অফিস সহকারীর কক্ষে বসে থাকার সময় হঠাৎ এক যুবক কক্ষে ঢুকে আমার কাছে থাকা দরপত্রের খাম ছিনিয়ে নেয় ও গায়ের পাঞ্জাবি টেনে ছিঁড়ে ফেলে। এরপর সে পালিয়ে যায়। পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের মতো একটি জায়গায় এমন ঘটনা বিস্ময়কর। ’ তিনি নতুন করে এসব কাজের দরপত্র আহ্বানের দাবি জানান।

দলীয় ক্যাডাররা কি দরপত্র ছিনতাই ও তাকে অপমান করার সঙ্গে যুক্ত? এ প্রশ্নের জবাবে মিলন বলেন, ‘আমি কাউকে চিনতে পারিনি। ’ তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, ‘দলীয় প্রতিপক্ষরাই এ কাজ করেছে। ’


মন্তব্য