kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


হাইকোর্টের রুল

ইনুর জাসদকে মশাল প্রতীক দেওয়া কেন অবৈধ হবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর নেতৃত্বাধীন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলকে (জাসদ) জাতীয় নির্বাচনে মশাল প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহীম ও বিচারপতি আশীষ রঞ্জন দাসের অবকাশকালীন বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

জাসদের অন্য অংশের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধানের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক শুনানি শেষে রুল জারি করা হয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশন সচিব ও জাসদের একাংশের প্রধান হাসানুল হক ইনুকে আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

রিট আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন ড. শাহদীন মালিক। তাঁকে সহায়তা করেন অ্যাডভোকেট জহিরুল আলম বাবর। সরকার পক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

সূত্র জানায়, হাসানুল হক ইনুর নেতৃত্বাধীন জাসদের অংশকে সম্প্রতি মশাল প্রতীক বরাদ্দের সিদ্ধান্ত দেয় নির্বাচন কমিশন। এ সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদনটি করা হয়েছে। আবেদনে বলা হয়েছে, একটি পক্ষকে না ডেকেই নির্বাচন কমিশন একতরফা সিদ্ধান্ত দিয়েছে। যেটা আইন ও বিধিসম্মত হয়নি।

রিট আবেদনকারীর আইনজীবী শুনানিতে বলেন, বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। সেখানে শরীফ নুরুল আম্বিয়া ও নাজমুল হক প্রধান জাসদের নেতৃত্বে মশাল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছেন। ওই নির্বাচনে হাসানুল হক নিজে ও বর্তমানে তাঁর নেতৃত্বাধীন অংশ নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছেন এবং ইনু নিজে কুষ্টিয়াতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তাই নাজমুল হক প্রধানের নেতৃত্বের দল মশাল প্রতীকের প্রকৃত দাবিদার। কিন্তু নির্বাচন কমিশন ইনুর নেতৃত্বাধীন অংশকে সম্প্রতি মশাল প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছে, যা বেআইনি।


মন্তব্য