kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে ৩৬৬ ঝুঁকিপূর্ণ স্থান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী দুই দেশের সীমানায় ৩৬৬টি ঝুঁকিপূর্ণ স্থান চিহ্নিত করেছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে গতকাল এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তবে চিহ্নিত জায়গাগুলোর নাম বা সেগুলো কোন জেলায় —সে বিষয়ে কোনো তথ্য প্রেতিবেদনে প্রকাশ করা হয়নি।

পত্রিকাটি লিখেছে, মানুষ, গরু, সোনা, মাদক ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য চোরাচালান হয় এসব স্থান দিয়ে। এমনকি ভারতীয় বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ওই সব স্থান ব্যবহার করে সীমান্ত পার হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ

করা হয়। এসব বন্ধ করতে অপরাধীদের একটি তথ্যভাণ্ডার তৈরির কাজ করছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ)।

বিজিবির আঞ্চলিক অধিনায়ক খলিলুর রহমানকে উদ্ধৃত করে টাইমস অব ইন্ডিয়া বলেছে, ‘আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে দুই দেশের বন্ধুত্ব ও আত্মবিশ্বাস এখন দৃঢ়। সীমান্তে পাচারকারীদের তত্পরতা বন্ধে আমরা পদক্ষেপ নিচ্ছি। ’

কলকাতায় বিএসএফের ডিআইজি আরপিএস জাসওয়াল বলেন, ‘বিএসএফ ও বিজিবি আগের চেয়ে অনেক ভালোভাবে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে নজরদারি চালাচ্ছে। ’

বিজিবি প্রধান মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, ‘পাচারকারীদের কোনো জাতীয়তা নেই। বিএসএফ যেমন তাদের নিয়ন্ত্রণ করে, আমরাও তেমনই করি। আমাদের সরকার নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছে, ভারত ও মিয়ানমারের সঙ্গে সীমান্তজুড়ে কাঁটাতারের বেড়া দেওয়া হবে। নীতিগতভাবে এটাও সিদ্ধান্ত হয়েছে, বাংলাদেশের সীমান্তজুড়ে সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে যেমন ভারত ও মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষার জন্য করা হয়েছে। ’


মন্তব্য