kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


৪১ বছর পর নানার বাড়িতে সেনাপ্রধান বেলাল ও মেয়র আনিসুল

নোয়াখালী ও ফেনী প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক এবং তাঁর ভাই ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক পৈতৃক বাড়ি নোয়াখালীর কবিরহাটে এসেছেন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় পৈতৃক বাড়িতে পৌঁছে সেখানেই রাত্রি যাপন করেন তাঁরা দুই ভাই।

এর আগে গতকাল দুপুরে তাঁরা ফেনীর সোনাগাজীর আমিরাবাদ ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামের নানার বাড়ি মিয়াজি বাড়িতে বেড়াতে যান। প্রায় ৪১ বছর পর তাঁরা সেখানে যাওয়ায় তাঁদের দেখতে স্বজন ও এলাকাবাসীর ঢল নামে।

আজ শনিবার সকালে সেনাপ্রধান ট্রাস্ট ব্যাংকের কবিরহাট শাখার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। অন্যদিকে বিকেলে কবিরহাট হাই স্কুল মাঠে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ মেয়র আনিসুল হককে সংবর্ধনা দেবে। দুটি অনুষ্ঠানেই উপস্থিত থাকবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

গতকাল সন্ধ্যায় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এলে জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপি মেয়র আনিসুল হককে বরণ করে নেন। এ সময় সড়কমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ জেলার নেতারাও তাঁকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। পরে তিনি নোয়াখালী পৌর ভবনে গেলে পৌর মেয়র শহীদ উল্লাহ খান সোহেল তাঁকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

অন্যদিকে গতকাল দুপুরে ফেনীর সোনাগাজীতে নানাবাড়িতে পৌঁছে সেনাপ্রধান বেলাল ও মেয়র আনিসুল হক সেখানকার মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আনিসুল হক শৈশবে নানাবাড়ির বিভিন্ন স্মৃতিচারণা করেন। পরে তাঁদের সম্মানে নানাবাড়িতে মেজবানের আয়োজন করা হয়।

এ সময় ফেনী-১ আসনের এমপি শিরিন আক্তার, ফেনী-২ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি জাহান আরা বেগম সুরমা, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান, পুলিশ সুপার রেজাউল হক পিপিএম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য