kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বুয়েটে তিন দিনব্যাপী চারকোল আর্ট প্রদর্শনী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



চিত্রকলা ও অঙ্কন শিল্পকে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া ও তরুণ প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করতে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) তিন দিনব্যাপী চারকোল আর্ট প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে বুয়েট অডিটরিয়ামে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন।

বুয়েটের শিক্ষার্থীদের আঁকা ছবি নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে চারকোল বুয়েট আর্টিস্ট সোসাইটি। স্ক্রেচ, ডিজিটাল পেইন্টিং, তেলরং ও লাইভ পোট্রেটে আঁকা শতাধিক ছবি এই প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে।

সংগঠনটির সভাপতি তানভীর ইমতিয়াজ লিমনের সভাপতিত্বে চারকোলের মডারেটর ও বুয়েটের পানি সম্পদ প্রকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক সাব্বির মোস্তফা খান, স্থাপত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শামীম আরা হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে আর্টস বা মানবিক বিষয় পড়ানোর উদাহরণ দিয়ে স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন বলেন, ‘আমাদের দেশে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে আর্টস কিংবা মানবিক বিষয় পড়ানো হয় না। কিন্তু অনেক উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে ঐচ্ছিক হিসেবে এসব বিষয় পড়ানো হয়। মানবিক বিষয় না পড়ালে মানুষ নিজের অজান্তেই অমানুষ হয়ে যাবে। জন্মগতভাবেই মানুষের মাঝে শৈল্পিক গুণ থাকে, সেই গুণকে কাজে লাগিয়ে সত্যিকারের মানুষ গড়ার আহ্বান জানান তিনি। ’

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ভর্তির একটি গল্প তুলে ধরে তিনি বলেন, প্রকৌশল বিভাগে ভর্তির সময় শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন করা হয়েছিল কেন এই বিষয়টি বেছে নিয়েছেন। প্রত্যেকের উত্তর ছিল দেশ ও জাতির সেবা করতে। ভর্তির পর আবার প্রশ্ন করা হলো কেন এই বিষয়টি পড়ছেন— অনেকের উত্তর ছিল এই বিভাগে পড়ে অনেক টাকা উপার্জন করা যায়। আমরা সত্যিকার মানুষ তৈরি করছি না, টাকা উত্পাদনের মানুষ বানাচ্ছি। সত্যিকারের মানুষ বানাতে আর্টসের বিষয়গুলোও পড়ানোর ওপর গুরুত্ব দেন তিনি। পরবর্তী সময় এই আর্টস প্রদর্শনীকে ক্যাম্পাস জুড়ে ছড়িয়ে দেওয়ার আশা ব্যক্ত করেন।


মন্তব্য