kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মামলা না তোলায় বাদীর হাত-পা ভাঙল আসামিরা

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মামলা তুলে না নেওয়ায় আসামিরা বাদীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের বড়ালু এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

গুরুতর আহত সাইদুর রহমান (৪০) বড়ালুর মোখলেছুর রহমানের (মৃত) ছেলে। তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সাইদুর রহমান জানান, প্রায় দুই বছর আগে বড়ালুর সোলায়মান মিয়ার ছেলে সুলতান ওরফে সুলতান ডাকু তাঁর কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় সুলতান ও তাঁর সহযোগীরা সাইদুর রহমানকে হাত-পা বেঁধে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ ঘটনায় সুলতানসহ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন সাইদুর। বেশ কয়েক দিন ধরে সাইদুরসহ পরিবারের সদস্যদের মামলা তুলে নিতে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছে সুলতান। গতকাল সন্ধ্যায় সুলতান ও তাঁর সহযোগী সোলায়মান, সফি মিয়া সাইদুরকে আটক করে বেঁধে ফেলে হাতুড়িপেটা করে তাঁর হাত-পা ভেঙে দেন। মামলা তুলে না নিলে হত্যা করে নদীতে ফেলার হুমকি দেন। পরে সাইদুরের চিত্কারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা।

এলাকাবাসী জানায়, সুলতান নিজ এলাকাসহ আশপাশের এলাকায় চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, খুন, ধর্ষণসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করে আসছে। তাঁর বিরুদ্ধে রূপগঞ্জসহ বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে। গতকালের ঘটনার পর থেকে সে পলাতক।

রূপগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফরিদ আহাম্মেদ বলেন, সুলতানকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য