kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রাজধানীতে শিশুর ক্ষতবিক্ষত লাশ

হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



রাজধানীতে শিশুর ক্ষতবিক্ষত লাশ

রাজধানীতে উজালা ম্যাচ ফ্যাক্টরি থেকে শিশু আবদুল্লার মৃতদেহ উদ্ধারের পর মায়ের আহাজারি। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীর কদমতলীতে মুখমণ্ডল ও মাথা থেঁতলানো অবস্থায় আবদুল্লাহ নামের সাত বছরের এক শিশুর লাশ উদ্ধার হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে উজালা ম্যাচ ফ্যাক্টরির সীমানার ভেতর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

পরিবারের অভিযোগ, শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক বা চিহ্নিত করতে পারেনি পুলিশ।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, আবদুল্লাহ তার মা-বাবার সঙ্গে কদমতলীর আলীবহর এলাকায় থাকত। তাদের গ্রামের বাড়ি বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার আন্দারমানিক এলাকায়। শিশুটির বাবা গোলাম মোস্তফা শ্যামপুরে পাওয়ার হাউসের গাড়ির ড্রাইভার। মা আয়শা বেগম স্থানীয় রিফা কমিউনিটি সেন্টারে থালা-বাসন ধোয়ার কাজ করেন। দুই ভাইয়ের মধ্যে আবদুল্লাহ ছিল বড়।

সন্তান হারানোর শোকে বিলাপ করছিলেন মা আয়শা বেগম। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি জানান, আবদুল্লাহ প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত স্থানীয় ছেলেদের সঙ্গে খেলা করত। গতকাল সকালে বের হয়ে দুপুর হয়ে গেলেও সে বাসায় ফেরেনি। দুপুর ২টার দিকে এক মহিলা আবদুল্লাহকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে বাসায় খবর দেন। ছুটে গিয়ে দেখেন, সেখানকার উজালা ম্যাচ কারখানার সীমানার ভেতরে ছেলে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। তার মুখমণ্ডল ও মাথার বাঁ পাশ থেঁতলানো। পাশে পড়ে আছে রক্তমাখা পাথরের একটি খণ্ড আর একটি টেনিস বল। উপস্থিত লোকজনের সহায়তায় বিকেল ৩টার দিকে আবদুল্লাহকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কদমতলী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আরশেদুল হক বলেন, ‘শিশুটির মরদেহ দেখেছি। মনে হচ্ছে, কেউ তাকে হত্যা করেছে। ঘাতকদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। ’


মন্তব্য