kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


এমপি হান্নানসহ আটজনের চার্জ দাখিল পেছাল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



এমপি হান্নানসহ আটজনের চার্জ দাখিল পেছাল

জাতীয় পার্টির এমপি আব্দুল হান্নানসহ আট রাজাকারের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের ফরমাল চার্জ (আনুষ্ঠানিক অভিযোগ) দাখিলের তারিখ পিছিয়েছে। এ জন্য আগামী ৩১ অক্টোবর নতুন দিন ধার্য করেছেন বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

গতকাল মঙ্গলবার ফরমাল চার্জ দাখিলের দিন ধার্য থাকলেও তা প্রস্তুত করতে না পারায় সময় চেয়ে আবেদন করে প্রসিকিউশন (রাষ্ট্রপক্ষ)। প্রসিকিউটর জাহিদ ইমাম জানান, ফরমাল চার্জ দাখিলের জন্য প্রয়োজনীয় কাজ শেষ না হওয়ায় সময় চেয়ে আবেদন করা হয়। ট্রাইব্যুনাল আগামী ৩১ অক্টোবর নতুন দিন ঠিক করে দিয়েছেন।

এই মামলার আট আসামির মধ্যে এমপি হান্নানসহ পাঁচজন কারাগারে রয়েছেন। কারাবন্দি অন্য চারজন হলেন এমপি হান্নানের ছেলে রফিক সাজ্জাদ, মুক্তিযুদ্ধকালে হান্নানের সহযোগী মিজানুর রহমান মিন্টু, ডা. খন্দকার গোলাম সাব্বির ও হরমুজ আলী। পলাতক তিনজন হলেন মো. ফখরুজ্জামান, মো. আব্দুস সাত্তার ও খন্দকার গোলাম রব্বানী।

এর আগে ১১ জুলাই এই মামলার তদন্ত প্রতিদেন প্রকাশ করে তদন্ত সংস্থা। পরদিন তা ট্রাইব্যুনালে উপস্থাপন করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা।

তদন্ত প্রতিবেদনে এই আটজনের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধকালীন হত্যা, অপহরণ, আটক, নির্যাতন, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও লাশ গুম করার অভিযোগ উঠে এসেছে। মুক্তিযুদ্ধকালে ময়মনসিংহের ত্রিশালে বিভিন্ন জায়গায় এসব অপরাধ সংঘটিত করেন আসামিরা।

গত বছরের ১৯ মে ত্রিশালের বইলরের শহীদজায়া রহিমা খাতুন একাত্তরে তাঁর স্বামী আবদুর রহমানকে হত্যার অভিযোগ স্থানীয় আদালতে দাখিল করেন ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনের এমপি এম এ হান্নানের বিরুদ্ধে। অভিযোগটি পরে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরিত করা হয়। গত বছরের ১ অক্টোবর রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই মামলার আট আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ট্রাইব্যুনাল। এমপি হান্নান ও তাঁর ছেলে রফিক সাজ্জাদ ওই দিনই ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার হন।


মন্তব্য