kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের পরিবারের সদস্যের আগাম জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



চাঁদাবাজির অভিযোগে করা এক মামলায় বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের ১০ স্বজনকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। তাঁদের আট সপ্তাহের আগাম জামিন দেওয়া হয়েছে।

জামিনপ্রাপ্তরা হলেন—অনির্বাণ ঠাকুর, নিপুণ ঠাকুর, নির্মল ঠাকুর, প্রতীক ঠাকুর, সবুজ ঠাকুর, তন্ময় ঠাকুর, স্বপন ঠাকুর, দেব কুমার বর, প্রমথ ঠাকুর ও কুমুদ রঞ্জন ঠাকুর।

বিচারপতি এম. মোয়াজ্জাম হোসেন ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল সোমবার এ জামিন মঞ্জুর করেন। জামিন আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম, আবদুর রাজ্জাক রাজু ও শামীমা ইসলাম মৌ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিত রায়।

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান বিধান বিশ্বাসের অনুসারী হিসেবে পরিচিত বিপ্লব রায় বাদী হয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে গত ১২ সেপ্টেম্বর রাজৈর থানায় মামলা করেন। বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের ওই ১০ স্বজনকে মামলার আসামি করা হয়। এ মামলায় গতকাল তাঁরা হাইকোর্টে হাজির হয়ে জামিন নেন।

ইউপি চেয়ারম্যান বিধান বিশ্বাসের বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ এনে তা প্রশাসনকে জানান বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর। অভিযোগে বলা হয়, একই ইউনিয়নের আড়ুয়াকান্দি গ্রামের একটি মন্দির থেকে সোলার প্যানেল চুরি এবং সরকারি জায়গা থেকে গাছ কেটে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করছেন বিধান বিশ্বাস। অভিযোগ স্থানীয় প্রশাসনকে জানানোর পরও কোনো আইনগত ব্যবস্থা না নেওয়ায় গত ৩১ আগস্ট আদালতে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিচারপতি। তাঁর বক্তব্য নিয়ে পরদিন ১ সেপ্টেম্বর কালের কণ্ঠে ‘কে ক্ষমতাধর, বিচারপতি নাকি ইউপি চেয়ারম্যান’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।


মন্তব্য