kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিমানের ফিরতি হজ ফ্লাইটে বিলম্ব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



পবিত্র হজ পালন শেষে হাজিদের নিয়ে বাংলাদেশ বিমানের প্রথম ফিরতি ফ্লাইটেই বিলম্ব হয়েছে। জেদ্দা বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নে দেরি করায় গতকাল রাতে নির্ধারিত সময়ে ফ্লাইটটি ঢাকায় পৌঁছেনি।

রাত ৮টা ৪০ মিনিটে ঢাকায় অবতরণ করার কথা ছিল। বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ফ্লাইটটি প্রায় পাঁচ ঘণ্টা দেরিতে পৌঁছবে। তবে সৌদি এয়ারলাইনসের ফিরতি হজ ফ্লাইট গতকাল দুপুরে নির্ধারিত সময়ে এসে পৌঁছেছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ বিমানের পূর্বনির্ধারিত সিডিউল অনুযায়ী সৌদি আরবের স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় ৪১৯ জন হাজি নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ফ্লাইটটি রওনা দেয়। রাত ৮টা ৪০ মিনিটে তা ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা। কিন্তু প্রথম ফ্লাইটের হজযাত্রীরা প্রয়োজনীয় কার্যক্রম শেষে সময়মতো জেদ্দা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে না পৌঁছানোর জন্য বিলম্ব হয়।

হজযাত্রীদের জেদ্দা বিমানবন্দরে পৌঁছাতে বিলম্ব হওয়ার কারণে নির্ধারিত সময় পরিবর্তিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) খান মোশাররফ হোসেন। গত রাতে তিনি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ফিরতি হজ ফ্লাইটের প্রথম ফ্লাইটটি শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টা ৪০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছানোর কথা থাকলেও প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা দেরিতে ফ্লাইটটি আনুমানিক রাত দেড়টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করতে পারে।

গতকাল থেকেই বাংলাদেশি হাজিদের দেশে ফেরা শুরু হয়েছে। ফিরতি হজ ফ্লাইট চলবে আগামী ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত। সৌদি আরব থেকে হাজিদের ফেরত আনতে ২৯টি নির্ধারিত ও ১০৮টি অতিরিক্ত ফ্লাইট পরিচালনা করবে বাংলাদেশ বিমান। এ ছাড়া সৌদি এয়ারলাইনসও সমসংখ্যক হাজি নিয়ে দেশে ফিরতি ফ্লাইট পরিচালনা করবে।

এবার হাজির সংখ্যা সর্বনিম্ন : বিশ্ব মুসলিম সমপ্রদায়ের ধর্মীয় মিলনকেন্দ্র পবিত্র ভূমি সৌদি আরবে গত এক দশকের তুলনায় চলতি বছর সবচেয়ে কমসংখ্যক ধর্মপ্রাণ মুসলিম পবিত্র হজ পালন করেছে বলে জানা গেছে। ২০০৭ সালে হজ পালনকারীর মোট সংখ্যা ছিল ২৪ লাখ ৫৪ হাজার ৩২৫ জন। মোট হাজির মধ্যে ১৭ লাখ সাত হাজার ৩১৪ জন বিদেশি ও সাত লাখ ৪৬ হাজার ৫১১ জন অভ্যন্তরীণ (সৌদি) হাজি ছিল। সৌদি আরবের দ্য জেনারেল অথরিটি অব স্ট্যাটিস্টিকসের (জিএএসএ) বরাত দিয়ে শুক্রবার ইংরেজি দৈনিক সৌদি গেজেট এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

সূত্র জানায়, চলতি বছর মোট হাজির সংখ্যা হ্রাস পেয়ে দাঁড়ায় ১৮ লাখ ৬২ হাজার ৯৯ জনে। তাদের মধ্যে ১৩ লাখ ২৫ হাজার ৩৭২ জন বিদেশি এবং পাঁচ লাখ ৩৭ হাজার ৫৩৭ জন দেশি। ওই সময়ের তুলনায় বর্তমানে হজযাত্রীর সংখ্যা কমেছে পাঁচ লাখ ৯১ হাজার ৪১৬ জন।

গত বছর মিনায় ক্রেন দুর্ঘটনায় সাড়ে সাত শ মানুষের প্রাণহানির পর হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে সৌদি আরবের সমালোচনা করে ইরান। এর জেরে এবার হজ পালন থেকে বিরত থাকে দেশটি।


মন্তব্য