kalerkantho


সুস্থ হয়ে উঠছে জান্নাত, এবার গৃহকর্ত্রী গ্রেপ্তার

আর্থিক সহায়তা প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর ও চাঁদপুর প্রতিনিধি   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সুস্থ হয়ে উঠছে জান্নাত, এবার গৃহকর্ত্রী গ্রেপ্তার

বাড়িতে মাকে দেখতে যাওয়ার ‘অপরাধে’ অমানবিক নির্যাতনের শিকার ৯ বছরের শিশু জান্নাতের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তাকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ জন্য তিন সদস্যের একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

শিশুটির চিকিৎসার জন্য ২৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সবুর মণ্ডল। গতকাল দুপুরে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে শিশুটিকে দেখতে যান তিনি। একই সঙ্গে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বিশেষ শিল্পাঞ্চলের চেয়ারম্যান, সচিব প্রবণ চৌধুরী ও তাঁর মেয়ে পল্লবী চৌধুরী আর্থিক সহায়তা দেন।

এদিকে গতকাল রাতে রাজধানীর বাড্ডার সাঁতারকূলের বোনের বাড়ি থেকে জান্নাতের গৃহকর্ত্রী মনি বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে গ্রেপ্তার করা হয় গৃহকর্তা ওমর ফারুক ও তার ভায়রা মোস্তফা সর্দারকে। তাদেরকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল শুক্রবার দুপুরে গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মাহবুবা আক্তার এ নির্দেশ দেন।

গাজীপুরের ভুরুলিয়া এলাকায় ওমর ফারুক-মনি বেগম দম্পতির নির্যাতনের শিকার হয় গৃহকর্মী জান্নাত। তার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ক্ষতবিক্ষত হয়ে যায়। এরপর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে মোস্তফা সর্দার নামের এক ব্যক্তির মাধ্যমে শিশুটিকে গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। গত বৃহস্পতিবার শিশুটিকে প্রথমে হাইমচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চাঁদপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক রায়হান মো. ফারুক জানান, তিন সদস্যের একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এতে দ্রুত শিশুটির শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটছে। পরিচর্যার জন্য সার্বক্ষণিক একজন নার্স দায়িত্ব পালন করছেন। শিশুটির মাথায় ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া শরীরের বিভিন্ন অংশে গরম খুন্তি ও বিদ্যুতের তারের আঘাতে ক্ষত হয়ে গেছে। পুরোপুরি সুস্থ হতে ১৫-২০ দিন লাগবে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জয়দেবপুর থানার এসআই আবদুল আজিজ জানান, শিশু নির্যাতনের ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে থানায় মামলা হয়েছে। মামলার বাদী হয়েছেন শিশুটির প্রতিবেশী শাহজাহান ভুঁইয়া। গতকাল গৃহকর্তা ওমর ফারুক ও তার ভায়রা মোস্তফা সর্দারকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করা হয়।


মন্তব্য