kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বরিশালে দুপক্ষের সংঘর্ষ কলেজ ছাত্র নিহত

বরিশাল অফিস   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে বরিশালের মুলাদীতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে আরো অন্তত ১০ জন।

গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার বাটামারা ইউনিয়নের সেলিমপুর বন্দর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দুই পক্ষই ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

নিহত কলেজ ছাত্রের নাম রবিউল হাওলাদার (২০)। তিনি টুমচর গ্রামের বজলুর রহমান হাওলাদারের ছেলে। সৈয়দ বদরুল হোসেন ডিগ্রি কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়তেন রবিউল। আহতদের মধ্যে রাশেদ ও শরিফুল ইসলাম নামের দুজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সেলিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে ফুটবল খেলা নিয়ে টুমচর এলাকার ছাত্রলীগকর্মী শরিফুল ইসলামের পক্ষের সঙ্গে সেলিমপুর গ্রামের ছাত্রলীগকর্মী সাদিকের পক্ষের কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

বিষয়টি নিয়ে গতকাল সকালে সেলিমপুর বন্দরে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সালিস বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। সেই অনুযায়ী বন্দরে দুই পক্ষের লোকজন জড়ো হয়। সকাল ১০টার দিকে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার একপর্যায়ে শরিফুলের লোকজন সাদিকের লোকজনের ওপরে হামলা চালায়। পরে সাদিকের পক্ষ স্থানীয় লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে পাল্টা হামলা চালায় শরিফুলের লোকজনের ওপর। দুই পক্ষের সংঘর্ষে শরিফুলের সমর্থক রবিউল গুরুতর আহত হন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাটামারা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বলেন, দুই পক্ষের সংঘর্ষে রবিউল হাওলাদার নিহত হয়েছেন। মুলাদী থানার ওসি মতিউর রহমান জানান, গতকাল সংঘর্ষের খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ওসি আরো জানান, রবিউলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ।


মন্তব্য