kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আটক ইশরাক ‘জিহাদ’ নিয়ে ব্লগ লিখতেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



জঙ্গি সন্দেহে আটক ইশরাক বেশ কিছুদিন থেকেই জিহাদ নিয়ে লেখালেখি করছেন। তিনি নিয়মিত ফেসবুক এবং ব্লগে লিখতেন।

তার ফ্যানপেজ রয়েছে। ওই পেজের বন্ধুরা জিহাদি কার্যক্রমের নানা দিক, এর প্রয়োজনীয়তা এবং বর্তমানে দেশে ও বিদেশে জিহাদি তৎপরতা সম্পর্কে মতবিনিময় করতেন। বেশ কিছুদিন নজরদারিতে রেখে র‍্যাব তাঁকে আটক করে। তাঁর কাছ থেকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে জিহাদি বই ও সিডি উদ্ধার করা হয়েছে।

গত ৭ সেপ্টেম্বর রাতে ইশরাক ও তাঁর মা-বাবাকে র‍্যাব সদস্যরা খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানাধীন এরশাদ আলী লেনের বাসা থেকে আটক করে। পরে তাঁর মা-বাবাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ইশরাককে বিশেষ ক্ষমতা আইনে গ্রেপ্তার দেখিয়ে ৮ সেপ্টেম্বর আদালতে সোপর্দ করে। বর্তমানে তিনি কারাগারে রয়েছেন।  

র‍্যাব, এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, ইশরাকের বাবা খুলনা আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রকের একান্ত সহকারী ইদ্রিস আলী মণ্ডল। তাঁর মা নুরুন্নাহার বেগম। তিনি একজন ধর্মপ্রাণ মানুষ; ওয়াজ মহাফিলসহ ধর্মীয় নানা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এই দম্পতির দুই ছেলে। বড় ছেলে ইশরাক ও ছোট ছেলে ইশতিয়াক। ইশরাক মাদ্রাসা থেকে দাখিল পাস করে। পরে সাধারণ কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে। তিনি বর্তমানে খুলনার মেডিক্যঅল অ্যাসিসট্যান্ট ট্রেনিং স্কুল ম্যাটস-এর তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

র‍্যাব সূত্র জানায়, তাদের কাছে ইশরাকের জিহাদি কার্যক্রম সম্পর্কে খবর আসায় তারা ওই পরিবারের সদস্যদের প্রতি নজরদারি শুরু করে। ইশরাক মাঝেমধ্যে উধাও হয়ে যেত। ছয়-সাত দিন পর ফিরে আসত। তিনি নিয়মিত জিহাদ নিয়ে লেখালেখি করতেন। তাঁদের গ্রুপে শতাধিক সদস্য রয়েছে। ওই সব লেখালেখিতে জিহাদের প্রয়োজনে আত্মত্যাগের আহ্বান জানানো হতো। তাঁকে আটক করার সময় ওই বাড়িতে বিপুল পরিমাণে জিহাদি বইপত্র ও  সিডি উদ্ধার করা হয়েছে।


মন্তব্য