kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কথিত বন্দুকযুদ্ধে তিন জেলায় তিন ‘ডাকাত’ নিহত

সুন্দরবনে উদ্ধার চারটি হরিণের চামড়া

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে খুলনার কয়রা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও ঢাকার আশুলিয়ায় তিনজন নিহত হয়েছে। গতকাল রবিবার ভোর ও শনিবার মধ্যরাতে এই তিনটি ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজনই ডাকাতদলের সদস্য বলে পুলিশ দাবি করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, খুলনার কয়রায় সুন্দরবনে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ব্যক্তির নাম মো. রবিউল ইসলাম গাজী (২৪)। সে সুন্দরবনকেন্দ্রিক বনদস্যুদল রবিউল বাহিনীর প্রধান ছিল। বন্দুকযুদ্ধের পর অস্ত্র ছাড়াও চারটি হরিণের চামড়া ও দুটি শিং উদ্ধার করা হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে নিহত মো. কাজল মিয়ার (৩৫) বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে থানায় আটটি মামলা রয়েছে। আশুলিয়ায় নিহত আনোয়ার হোসেন (৩২) আন্তজেলা ডাকাতদলের প্রধান ছিল।

আমাদের খুলনা অফিস, নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধির পাঠানো খবর :

খুলনা : কয়রা উপজেলার সুন্দরবনের কেয়াখালী খালের পূর্ব পারে গতকাল ভোরে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, আগের দিন শনিবার রাত ৯টার দিকে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় বনদস্যু রবিউল ইসলামকে কয়রার ৪ নম্বর লঞ্চঘাট এলাকায় নদী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার সঙ্গে থাকা দুজন পালিয়ে যায়। তারা ওই সময় লঞ্চ ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি রাইফেল, রাইফেলের পাঁচটি গুলি, বন্দুকের তিনটি গুলি, একটি রামদা ও একটি ছুরি উদ্ধার করেছে। নিহত রবিউল ইসলাম গাজী কয়রা উপজেলার মহারাজপুর গ্রামের রুহুল আমীন গাজীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে কয়রা থানায় অস্ত্র আইনে তিনটি, ডাকাতির চারটি ও বন আইনে একটি মামলা রয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : নবীনগরের বিটঘর এলাকার মহেশ সড়কের আউল ভাঙ্গা ব্রিজের কাছে কথিত বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলেছে, গত শনিবার মধ্যরাতে ১০-১৫ জনের একটি ডাকাতদল গাছ ফেলে ডাকাতির প্রস্তুতি নেয়। খবর পেয়ে শিবপুর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত উপপরিদর্শক (এসআই) রেজাউল করিমের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে ছুড়তে পালাতে থাকে ডাকাতদল। পুলিশও এ সময় আত্মরক্ষার্থে ৯ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে পাইপগান ও দুটি কার্তুজসহ আটক করা হয়।

সাভার (ঢাকা) : আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়ী এলাকায় গতকাল ভোরে বন্দুকযুদ্ধে আনোয়ার হোসেন নিহত হয়। গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে আশুলিয়া থানায় সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান সাভার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, গত কয়েক দিনে মহাসড়কগুলোয় কয়েকটি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এরপর পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালাতে থাকে। টঙ্গাবাড়ী এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি চলছে—এমন সংবাদ পেয়ে শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে পুলিশের দুটি দল অভিযান চালায়।


মন্তব্য