kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জেএসসি পরীক্ষা বাতিলে রুল জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা কেন অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল বৃহস্পতিবার এ রুল জারি করেন।

আদালত সূত্র জানিয়েছে, জেএসসি পরীক্ষার্থীর পিতা ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. ইউনুছ আলী আকন্দের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রুল জারি করা হয়েছে। রুলে জেএসসি পরীক্ষা বিষয়ে ছয় বছর আগে জারি করা পরিপত্র এবং সরকারের সিদ্ধান্ত কেন বাতিল করা হবে না তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব, শিক্ষাসচিব, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিবসহ ছয়জনকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

গতকাল আদালতে রিট আবেদনকারী অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ নিজেই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোখলেসুর রহমান।

রিট আবেদনে বলা হয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধ্যাদেশ-১৯৬১-তে শুধু এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার কথা বলা আছে। ওই আইনে এ দুটি পরীক্ষা ছাড়া অন্য কোনো পরীক্ষা নেওয়ার এখতিয়ার শিক্ষা বোর্ডকে দেওয়া হয়নি। কিন্তু সরকার শুধু প্রজ্ঞাপন জারি করার মাধ্যমে জেএসসি ও সমমানের পরীক্ষা চালিয়ে আসছে। এতে শিক্ষার্থীদের ওপর চাপ বাড়ছে। কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের মেধা বিকাশ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এতে ভবিষ্যতে মেধাশূন্যতা দেখা দেবে। এ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে কোচিং বাণিজ্য গড়ে উঠেছে। সন্তানদের ভালো রেজাল্ট করানোর জন্য অভিভাবকরা কোচিং সেন্টারে ছুটছেন। স্কুলগুলোতে অতিরিক্ত ক্লাস ও মডেল টেস্ট পরীক্ষার নামে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এ অবস্থায় জেএসসি পরীক্ষা বাতিল চেয়ে গত ৩১ আগস্ট হাইকোর্টে এ রিট আবেদনটি করেন ইউনুছ আলী আকন্দ।


মন্তব্য