kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে ১০ হাজার কনস্টেবল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



এক হাজার ৩০ জন মানুষের বিপরীতে দেশে রয়েছে একজন পুলিশ সদস্য। জাপানে ২৫০ জনের বিপরীতে রয়েছে একজন।

পাশের দেশ ভারতে এ সংখ্যা ৭৩০ জনে একজন। এসব বিবেচনায় নিয়ে পুলিশি সেবা আরো সহজে মানুষের কাছে পৌঁছাতে বাহিনীতে আরো পুলিশ নিয়োগের জন্য পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী নতুন করে আরো ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে ১০ হাজার পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হয়েছে। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে নিয়োগ পরীক্ষার কথা রয়েছে। এর আগে আরো ১০ হাজার পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী পদ সৃষ্টি ও নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র জানায়, আগামী ২৪ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতিটি জেলায় নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ১০ হাজার কনস্টেবলের মধ্যে আট হাজার ৫০০ জন পুরুষ ও এক হাজার ৫০০ জন নারীকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক (এআইজি) মো. জালাল উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দেশে জনগণের অনুপাতে পুলিশের সংখ্যা অনেক কম। পুলিশ সব সময় জনগণকে অধিক সেবাদানের চেষ্টা করে। পুলিশে যদি লোকবল বাড়ে তাহলে জনগণের দোরগোড়ায় অধিক সেবা দেওয়ার সুযোগ মিলবে। ’

পুলিশ সূত্র জানায়, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে পুলিশ কিভাবে কাজ করে সে বিষয়টি নিয়ে পুলিশে নানা কথাবার্তা আছে। সে সব বিষয় কিভাবে এ বিভাগে যোগ করা যায় তা নিয়ে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোর মতো জনসংখ্যার অনুপাতে পুলিশের সংখ্যা বাড়িয়ে কিভাবে আরো কার্যকরভাবে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা বিবেচনায় রাখা হয়েছে। এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, সারা দেশে পুলিশের সংখ্যা এক লাখ ৫৪ হাজার। মানুষকে অধিক সেবা দিতে শুধু রাজধানী ঢাকতেই এক লাখ পুলিশ দরকার। বর্তমানে রাজধানীতে রয়েছে ২৬ হাজার ৫০০ জন পুলিশ সদস্য।


মন্তব্য