kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


চাঁদপুরে তেলের ট্যাংক বিস্ফোরণে আরো একজনের মৃত্যু

ঢাকার কারখানায় দগ্ধ একজন মারা গেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



চাঁদপুর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে বুধবার রাতে যুমনা অয়েল এজেন্সির গোডাউনে তেলের ট্যাংক থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধ আরো একজন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তাঁর নাম নূর মোহাম্মদ মামুন (৪০)।

গতকাল শনিবার সকাল ১১টার দিকে বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে রাজধানীর চকবাজার এলাকায় প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁর নাম আব্দুল বাতেন (২৭)।

বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শঙ্কর পাল জানান, গত বৃহস্পতিবার ভোরে দগ্ধ ছয়জনকে চাঁদপুর থেকে ঢামেকে আনা হয়। তাঁদের আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। গতকাল সকালে মামুন মারা গেছেন, যাঁর শরীরের ৯০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছিল।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানায়, গত বুধবার রাত ১২টার দিকে চাঁদপুর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে ট্যাংকলরি থেকে একটি গুদামে জ্বালানি তেল নামানোর সময় বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। পরে গুদাম ও এর পাশের একটি ভবনে আগুন ধরে যায়। ওই ঘটনায় সাতজন দগ্ধ হন, যাঁদের মধ্যে ছয়জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়। এখনো রায়হানের বাবা মিজানুর রহমান (৫০), বাদশা মিয়া (৫০), দেলোয়ার ভূঁইয়া (৩৫) ও মাসুদ হোসেন (২৮) নামের চারজন ঢাকা মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে ঢাকা মেডিক্যাল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, শুক্রবার দুপুরে চকবাজারের কেল্লার মোড় এলাকার একটি পলিথিন কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে তিনজন দগ্ধ হন। সেখানে দগ্ধ আব্দুল বাতেন গতকাল দুপুরে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।


মন্তব্য