kalerkantho


জঙ্গিদের আবার মানবাধিকার কিসের : আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



যারা ভুলবশত জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিয়েছে; কিন্তু এখনো কোনো হত্যাকাণ্ড বা অপরাধ করেনি তাদের পরিবারের কাছে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক। তিনি বলেছেন, ‘অনেকে জঙ্গিদের মানবাধিকারের কথা বলে। জঙ্গিদের আবার কিসের মানবাধিকার। আগে দেশকে বাঁচাতে হবে, জনগণকে বাঁচাতে হবে। তারপর রাজনীতি, দেশের স্বার্থেই রাজনীতি। সব বিষয়ে বিরোধিতা করলে হবে না। ’

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল শনিবার দুপুরে পুলিশ লাইনস মাঠে কমিউনিটি পুলিশিং এবং জঙ্গিবাদবিরোধী মহাসমাবেশে আইজিপি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইজিপি আরো বলেন, ‘জঙ্গিরা দেশের অগ্রগতিতে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছে, তারা সফল হবে না, আমরা জনগণের সমর্থন পাচ্ছি। এ দেশকে জঙ্গিদের দেশ করতে দেব না, দেশকে অকার্যকর করতে দেওয়া হবে না। এ দেশকে নিরাপদ, উন্নত বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলব। ’

বিপথগামী তরুণদের জঙ্গিবাদের পথ থেকে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়ে আইজিপি শহীদুল হক বলেন, ‘পুলিশ প্রশাসন আপনাদের সব ধরনের সাহায্য-সহযোগিতা করবে, আপনাদের হয়রানি করবে না। আর যদি অপরাধ করে থাকেন, হত্যা করে থাকেন, তাহলে দেশের প্রচলিত আইনে বিচার হবে, এর বেশি কিছু হবে না। সেই নিশ্চয়তা আমি দিলাম। ’ তিনি আরো বলেন, ‘আমি আশা করব, আপনারা যাঁরা বিপথগামী তরুণ, যুবক তাঁরা দয়া করে সঠিক পথে চলে আসেন। আপনাদের মা-বাবা কেমন আছেন বুঝতেই পারছেন। গুলশানে যাঁরা মারা গেছেন, তাঁদের মা-বাবা বুকের ব্যথায় কাতরাচ্ছেন, তবু লাশ গ্রহণ করেননি, ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছেন। ’

রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল হান্নান, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) খোরশেদ হোসেন, র‍্যাব-৫-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাহবুব আলম, জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দিন, বিজিবির ব্যাটালিয়ন-১-এর পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল শাহাজাহান সিরাজ, মহানগর কমিউনিটি পুলিশিংয়ের আহ্বায়ক আব্দুল খালেক, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন প্রমুখ।


মন্তব্য